রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

গোলটেবিলে মার্ক গ্রিন

অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৮ মে ২০১৮, শুক্রবার ০২:৫১ পিএম

অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র

ঢাকা : বিরোধীদলীয় নেতাদের আটক ও সাংবাদিক হয়রানিতে বাংলাদেশের অন্য বন্ধু রাষ্ট্রগুলোর মতো যুক্তরাষ্ট্রও উদ্বিগ্ন বলে জানিয়েছেন ইউনাইটেড স্টেটস এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টের (ইউএসএআইডি) প্রশাসক মার্ক অ্যান্ড্র– গ্রিন। বাংলাদেশ সফরের শেষ দিন বৃহস্পতিবার (১৭ মে) সকালে ঢাকায় আমেরিকান ক্লাবে এক গোলটেবিল বৈঠকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।  

বৈঠকে তিনি বলেন, বাংলাদেশের জন্য সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ, যা এদেশের মানুষের মতামতের প্রকৃত প্রতিফলন ঘটাবে। যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ পরস্পরের কার্যকর বন্ধু। এ বন্ধুত্ব গড়ে উঠেছে পারস্পরিক মূল্যবোধের ভিত্তিতে। বন্ধুদের সঙ্গে খোলামেলা ও আন্তরিকতায় কথা বলা প্রয়োজন মনে করে যুক্তরাষ্ট্র।

আমাদের অভিজ্ঞতা বলে, দায়িত্বশীল গণতান্ত্রিক সরকার দীর্ঘমেয়াদি অর্থনৈতিক অগ্রগতির অবিচ্ছেদ্য অংশ। বাংলাদেশের উন্নয়ন নিয়ে তিনি বলেন, গত এক দশক ধরে ৬ শতাংশের ওপর জিডিপি ধরে রাখা বিরাট অগ্রগতি। এই ধারা অব্যাহত রাখতে ভবিষ্যতে আমরা একসঙ্গে কাজ করব।

দীর্ঘদিন কংগ্রেসম্যান, রাষ্ট্রদূত ও মিলিনিয়াম চ্যালেঞ্জ অ্যাকাউন্টের বোর্ড অব ডিরেক্টরের দায়িত্ব পালনকারী গ্রিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনে প্রভাবশালী ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত। ঢাকা সফরকালে গত বুধবার তিনি বৈঠক করেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হকের সঙ্গেও। ওই বৈঠকে ২০২৪ সালে বাংলাদেশের মধ্যম আয়ের পথে উত্তরণের যাত্রাকে অভিনন্দন জানিয়ে এদেশে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দেখার আকাক্সক্ষা ব্যক্ত করেন তিনি।

এ সময় স্বাধীন মতপ্রকাশ এবং সমাবেশের অধিকার সংরক্ষণের পাশাপাশি জাতীয় নির্বাচনের আগে-পরে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার গুরুত্ব তিনি তুলে ধরেন। বৈঠকে ইউএসএআইডির কর্মী জুলহাস মান্নান হত্যার বিচারের অগ্রগতিও জানতে চান বলে গতকাল মার্কিন দূতাবাসের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

মার্ক গ্রিন গত ১৪ মে বাংলাদেশে আসেন। পরদিন কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেন। গতকালই তিনি মিয়ানমারের উদ্দেশে রওনা হন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue