বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

অতিরিক্ত সময়ে ইংল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়া সেমিফাইনাল

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার ০২:০৩ এএম

অতিরিক্ত সময়ে ইংল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়া সেমিফাইনাল

ঢাকা: ক্রোয়েশিয়ার কাছে সৌভাগ্যের প্রতীক টাইব্রেকার। সেই দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই টাইব্রেকারে চড়ে সেমিফাইনাল পর্যন্ত এসেছে মডরিচ-রাকিতিচরা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ চারের লড়াইটাও ১-১ গোলে সমতায় শেষ করেছে ক্রোয়েটরা। ফলে খেলা গড়িয়েছে অতিরিক্ত সময়ে।

বুধবার দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয় ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচের পঞ্চম মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে কেইরান ট্রিপারের দুর্দান্ত গোলে প্রথমার্ধে এগিয়ে যায় ইংলিশরা। তবে দ্বিতীয়ার্ধে ক্রোয়েশিয়াকে সমতায় ফেরান ইভান পেরেসিচ।  

এদিন মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে দারুন শুরু করে ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচের ৫ মিনিটের সময় ক্রোয়েশিয়ার ডি-বক্সের খুব কাছ থেকে ফে-কিকের সুযোগ পায় ইংল্যান্ড। আর সেই ফ্রি-কিক থেকে গোল করেন ইংল্যান্ডের কিয়েরান ট্রিপ্পিয়ার।  

গিয়ে গিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠে ইংল্যান্ড। মুহর্মুহু আক্রমণে ক্রোয়েশিয়াকে ব্যতিব্যস্ত রাখে তারা। একাধিক গোলও পেতে পারতো। তবে ১৪ ও ৩৬ মিনিটে দুটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন হ্যারি ম্যাগুইরে ও জেসি লিঙ্গার্ড।

মাঝে পাল্টা আক্রমণে সুযোগ সৃষ্টি করেছিল ক্রোয়েশিয়াও। তবে তারা স্বার্থ হাসিল করতে পারেনি। ১৯ ও ২৩ মিনিটে নাগালে পাওয়া সুযোগ হাতছাড়া করেন ইভান পেরেসিচ। আর ৪৩ মিনিটে মিস করেন সিমে ভ্রাসালকো। ফলে ১-০ গোলে পিছিয়ে বিরতিতে যায় ক্রোয়েশিয়া।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই সমতা ফেরাতে মরিয়া হয়ে উঠে  ক্রোয়েটরা। কিন্তু আক্রমণের পর আক্রমণ রচনা করেও গোলের দেখা পাচ্ছিল না মডরিচ-রাকিতিচরা। অবশেষে ৬৮ মিনিটে দুর্দান্ত এক গোলে ক্রোয়েশিয়াকে সমতায় ফেরান ইভান পেরেসিচ। সিমে ভ্রাসালকোর অসাধারণ থ্রু পাস থেকে নিশানাভেদ করেন এই ক্রোয়েশিয়ান।

এরপর আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ করেও গোল পায়নি কোনও দলই। ফলে নির্ধারিত সময়েও ম্যাচের নিষ্পত্তি হলো না। তার মানে দ্বৈরথ গড়াচ্ছে অতিরিক্ত সময়ে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue