শুক্রবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২ ফাল্গুন ১৪২৩

অতীতের গোনাহ মাফের উপায়

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৪ পিএম

অতীতের গোনাহ মাফের উপায়

সোনালীনিউজ ডেস্ক
অমুসলিমদের অতীত জীবনের গোনাহ মাফের গুরুত্বপূর্ণ একটি হাদিস রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বর্ণনা করেছেন। যা মুসলিমদের জন্য  অতিব গুরুত্বপূর্ণ। হাদিসটি এখানে তুলে ধরা হলো-

হজরত ইবনু আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত একদা কিছু সংখ্যক মুশরিক লোক, যারা মুশরিক অবস্থায় হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে, যেনা-ব্যভিচারে লিপ্ত ছিল, তারা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের নিকট এসে বলল, আপনি যা বলেন এবং যে দিকে আহবান করে তা খুবই উত্তম। তবে আমাদেরকে বলুন, অতীত জীবনে আমরা যে সমস্ত মন্দ কাজ করেছি তা মুছে যাবে কিনা? (তাহলে আমরা ইসলাম গ্রহণ করবো)। তখন এ আয়াত অবতীর্ণ হলো- এবং যারা আল্লাহর সাথে অন্য উপাস্যের ইবাদাত করে না, আল্লাহ যার হত্যা অবৈধ করেছেন, সঙ্গত কারণ ব্যতিত তাকে হত্যা করে না এবং ব্যভিচার করে না। যারা একাজ করে, তারা শাস্তির সম্মুখীন হবে। (সুরা ফুরক্বান : আয়াত ৬৮) আরো অবতীর্ণ হলো- বলুন, হে আমার বান্দাগণ যারা নিজেদের উপর যুলুম করেছ তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না। নিশ্চয় আল্লাহ সমস্ত গোনাহ মাফ করেন। তিনি ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু। (সুরা যুমার : আয়াত ৫৩) (মুসলিম)

অত্র হাদিস থেকে বুঝা যায় যে, কোনো অমুসলিম যদি উক্ত অন্যায়গুলো করার পর ইসলাম গ্রহণ করে তবে আল্লাহ তাআলা তাদেরকে ক্ষমা করে দিবেন। কারণ আল্লাহ তাআলাই বলেছেন, তাঁর রহমত থেকে নিরাশ না হওয়ার জন্য।

আর যারা মুসলিম এবং ইসলাম থেকে দূরে সরে গেছে, তারাও যত অন্যায় ও পাপ করুন না কেন, যদি তাওবা করে আর গোনাহ না করার ওয়াদা করে আল্লাহ কাছে ক্ষমা চায় এবং উক্ত হাদিস মোতাবেক আল্লাহর রহমতের উপর ভরসা করে, আশা করা যায়, আল্লাহ তাআলা উম্মাতে মুসলিমাকেও অতীতের সকল গোনাহ ক্ষমা করে দিবেন। আল্লাহ তাআলা আমাদের কবুল করুন। আমিন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

Sonali Bazar
add-sm
Sonali Tissue
শুক্রবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২ ফাল্গুন ১৪২৩