শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

অনলাইনে অভিবাসীদের যৌনতা শেখাচ্ছে জার্মানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

অনলাইনে অভিবাসীদের যৌনতা শেখাচ্ছে জার্মানি

যৌনতা ও ক্ষুধার মধ্যে রয়েছে একটা গভীর সম্পর্ক। ক্ষুধা লাগলে প্রতিটা প্রাণী যেভাবে নিবারণের জন্য ছুটোছুটি করে যৌনতার বিষয়টিও তেমন। যৌনতা একটি স্পর্শকাতর বিষয়। তবে জার্মানি এই বিষয়টি অনেকটা খোলামেলা ভাবেই দেখতে পছন্দ করে। আর তাই তো মধ্যপ্রাচ্য থেকে আসা অভিবাসীদের সুক্ষ্ণভাবে যৌনতা শেখানোর জন্য চালু করেছে একটি ওয়েবসাইট।

সাইটে কোনো কোনো জায়গায় কিভাবে সম্পর্ক তৈরি করতে হয় এবং গে, লেসবিয়ান এবং বিপরীত লিঙ্গের প্রতি কিভাবে শ্রদ্ধা জানাতে হয়, সে সম্পর্কে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। আবার কোনো কোনো জায়গায় কিভাবে এবং কোন কোন আসনে যৌনতা উপভোগ করা যায়, সে সম্পর্কে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

ওয়েবসাইটে (www.zanzu.de/) কার্টুনের নকশার মাধ্যমে যৌনতাকে সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে যা একই সাথে বস্তুনিষ্ঠ।

যারা অল্প বয়সে তাদের কুমারিত্ব হারাতে চান তাদের নিয়ে সাইটের একটি সেকশনে আলোচনা করা হয়েছে। অনেকের কুমারিত্ব হারানোর সময়কার আবেগ ও অনুভূতি এই সেকশনে আলোচনা করা হয়েছে।

১ লাখ ৩৬ হাজার ডলার খরচ করে তৈরি করা জার্মান ফেডারেল সেন্টার ফর হেলথ এডুকেশনের এই সাইটটির উদ্দেশ্য হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যবাসীর রক্ষণশীল যৌনতা আচরণ এবং জার্মানদের খোলাখুলি যৌনতা আচরণের মধ্যে একটা সেতুবন্ধন তৈরি করা।

জার্মানিতে নগ্নতা এবং যৌনতা সম্পর্কে আলোচনা খুবই সাধারণ বিষয়।

যদিও সাইটটি বিনয়ীভাব নিয়ে আলোচনা করেছে, তারপরও যেখানে ১০ হাজারেরও বেশি অভিবাসী রীতিমত যুদ্ধ করছে জার্মানদের সাথে একীভূত হওয়ার জন্য, অনেকের কাছে ওয়েবসাইটটির ব্যাপার হাস্যকর মনে হচ্ছে।

ব্রেভারিয়ায় স্থানীয় সরকার বিভাগের লোকজন জার্মান মেয়েদের সঙ্গে আক্রমণাত্মক না হয়ে কিভাবে সুন্দরভাবে আচরণ করবে তা অভিবাসী পুরুষদের শেখাচ্ছে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আমা

add-sm
Sonali Tissue
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩