শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭, ৬ কার্তিক ১৪২৪

‘আইটেম গার্ল’ বিপাশার ‘যা কিছু প্রথম’

বিনোদন প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ আগস্ট ২০১৭, শনিবার ০৩:৩৮ পিএম

‘আইটেম গার্ল’ বিপাশার ‘যা কিছু প্রথম’

ঢাকা: ঢালিউড সিনেমায় ‘আইটেম গার্ল’-এর কথা উঠলে যার নামটি প্রথম আসে তিনি বিপাশা কবির। সিনেমায় অভিনয় করতে হয়ে যান ‘আইটেম গার্ল’।এখন নিয়মিত অভিনয়ও করছেন।

জেনে নিন বিপাশার ‘যা কিছু প্রথম’-

পড়াশুনা: মালঞ্চ কিন্ডার গার্ডেন স্কুল।রাজধানীর মতিঝিলে স্কুলটি অবস্থিত। আমার নানা। নানার কাছে আমার প্রথম হাতেখড়ি হয়েছিল। তাঁর আদর পেয়েই বড় হয়েছি। আমি কিন্তু স্টুডেন্ট হিসেবে খুব ভালো ছিলাম না। তবে পড়াশোনায় অনেক ফাঁকিবাজি করতাম।

প্রথম নাটক: ‘একটি ক্যান্টিনের সবাই এবং একটি গল্প।’ অভিনেত্রী ঈশিতা আপু নাটকটি পরিচালনা করেছিলেন। ২০০৯ সালে নাটকটির শুটিং হয়েছিল। হুমায়ূন ফরিদী নাটকটি দেখে আমার অনেক প্রশংসা করেছিলেন।

ক্যামেরার সামনে : লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার সুন্দরী প্রতিযোগিতায় প্রথম ক্যামেরার সামনে আমি দাঁড়িয়েছিলাম। ২০০৯ সালে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে ১৪তম স্থানে আমি ছিলাম। তখন নাভার্স ফিল করিনি। নাটকের শুটিংয়ের সময় একটু নাভার্স ছিলাম।

প্রথম আইটেম গান: ‘ভালোবাসার রং’ ছবিতে প্রথম আইটেম গানে নেচেছিলাম। সত্যি বলছি, নাচ শুরু করার আগে আমি একটু ভয় পেয়েছিলাম। ভেবেছিলাম হয়তো তেমন ভালো কিছু করতে পারব না। পরে অবশ্য ভয় কেটে গিয়েছিল। আম্মু সাহস দিয়েছিলেন।

প্রথম সিনেমায় অভিনয়: ‘গুন্ডামি’। সায়মন সাদিক পরিচালিত ছবিটি ২০১৬ সালের মার্চে মুক্তি পেয়েছিল। ছবিতে আমার বিপরীতে ছিলেন নায়ক সাইমন।

প্রথম পারিশ্রমিক: ছবির আইটেম গানে নেচে প্রথম পারিশ্রমিক পেয়েছিলাম এক লাখ টাকা। আমি আম্মুকে টাকাগুলো দিয়েছি।

প্রথম সিনেমা দেখা: সালমান শাহ ও শাবনূর অভিনীত চলচ্চিত্র ‘সুজন সখি’। আমি তখন খুব ছোট ছিলাম। নানুর সঙ্গে জোনাকী হলে বসে ছবিটি দেখেছিলাম। এই স্মৃতি এখনো আমার কাছে রঙিন। ছবির গানগুলো খুব ভালো লেগেছিল।

প্রথম উপন্যাস পড়া: সমরেশ মজুমদারের লেখা উপন্যাস ‘সাতকাহন’। আমি গল্পের বই খুব কম পড়েছি।

প্রথম শাড়ি পরা : খুব ছোটবেলায় প্রথম শাড়ি পরেছিলাম। তবে সেটা কোনো অনুষ্ঠানে নাচ কিংবা গান করার জন্য নয়। আম্মু আমাকে শাড়ি পরিয়ে বউ সাজিয়ে দিয়েছিলেন। এরপর এই সাজে আমার ফটোশুট করা হয়।

প্রথম প্রেম: আমার জীবনে প্রথম প্রেম নেই। এ কথাটা এ কারণেই বললাম কারণ প্রতিটা প্রেমেই আমার কাছে নতুন মনে হয়। আমার কাছে মনে হয়, আবেগে পড়ে একে অপরের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। সম্পর্কের কিছুদিন পরে আর আবেগ থাকে না। শুরু হয় তিক্ততা। দিন দিন তিক্ততা বাড়তেই থাকে।

সোনালীনিউজ/বিএইচ