সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ৮ ফাল্গুন ১৪২৩

আজ চাষী নজরুল ইসলামের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৩৪ পিএম

আজ চাষী নজরুল ইসলামের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

বিনোদন প্রতিবেদক
খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক চাষী নজরুল ইসলামের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ সোমবার। দীর্ঘদিন ক্যান্সারের সঙ্গে লড়ে গত বছরের এইদিনে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন প্রথম মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্রের পরিচালক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও একুশে পদকজয়ী নির্মাতা, কালজয়ী চলচ্চিত্রকার চাষী নজরুল।

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার শ্রীনগর উপজেলার সমষপুরে তার কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, কবর প্রাঙ্গণে জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক জোটের দোয়া ও আলোচনা সভা হবে।

এছাড়া রাজধানীর কবি জসিম উদদীন রোডে তার বাসভবনে কোরআনখানি ও দরিদ্র ভোজের আয়োজন করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাব কনফারেন্স লাউঞ্জে চাষী নজরুল ইসলামের জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা সভা হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। এর পরের দিন বুধবার সকালে এফডিসিতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে চাষী নজরুল ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

চাষী নজরুল ইসলাম ১৯৪১ সালের ২৩ অক্টোবর মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার সমষপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৬১ সালে সৈয়দ মোহাম্মদ আওয়ালের মাধ্যমে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পদার্পণ করেন। খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক, অভিনেতা ফতেহ্ লোহানী ও প্রখ্যাত সাংবাদিক, চলচ্চিত্রকার ওবায়েদ-উল-হকের সহকারী হিসাবে তিনি চলচ্চিত্রের সাথে যুক্ত হন।

তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের ও মুক্তিযুদ্ধের প্রথম চলচ্চিত্র ওরা ১১জন নির্মাণের মাধ্যমে ১৯৭২ সালে চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। তিনি একাধিকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ জীবনে অসংখ্য পুরস্কার অর্জন করেছেন। ২০০৪ সালে তিনি একুশে পদক পান। চাষী নজরুল ইসলাম চারবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নির্বাচিত সভাপতি ছিলেন। তিনি ছিলেন জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি।

এছাড়াও অসংখ্য সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়েছেন সর্বাধিক মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ও সাহিত্য নির্ভর চলচ্চিত্রের প্রয়াত এ নির্মাতা।

তার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের ছবি সংগ্রাম, হাঙ্গর নদীর গ্রেনেড, মেঘের পরে মেঘ, সাহিত্য নির্ভর চলচ্চিত্র দেবদাস, শুভদা, চন্দ্রনাথ, সুভা, শাস্তি, বিরহ ব্যথা, হাছন রাজা ইত্যাদি। এছাড়াও তিনি দেশবরেণ্য তিন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে নিয়ে নির্মাণ করেছেন জীবন ভিত্তিক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র মওলানা ভাসানী, শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক ও দেশ-জাতি-জিয়াউর রহমান।
সোনালীনিউজ/তা

Sonali Bazar
add-sm
Sonali Tissue
সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ৮ ফাল্গুন ১৪২৩