শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

আপনার পুরুষত্ব কেড়ে নিতে পারে মোবাইল ফোন!

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৪ পিএম

আপনার পুরুষত্ব কেড়ে নিতে পারে মোবাইল ফোন!

সোনালীনিউজ ডেস্ক

মোবাইল ফোনের চৌম্বক তরঙ্গ আপনার শুক্রাশয়কে সেদ্ধ করে ফেলতে পারে। যা কেড়ে নিতে পারে আপনার পুরুষত্ব। নতুন এক গবেষণায় এমন আশঙ্কাজনক তথ্য উঠে এসেছে।

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় জানা যায়, বিছানায় মাথার কাছে রেখে ফোন চার্জ করা বা প্যান্টের পকেটে ফোন রাখলে পুরুষের শুক্রাণু উৎপাদন অর্ধেক পর্যন্ত হ্রাস পেতে পারে এবং এর গুণগত মানও নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

এ-সম্পর্কিত জরিপে দেখা যাচ্ছে, যেসব ব্যক্তি দিনে ২ ঘণ্টার বেশি ফোনে কথা বলে, তাদের শুক্রাণুর উৎপাদন যারা দিনে ১ ঘণ্টা কথা বলে তাদের চেয়ে অর্ধেক। রিপ্রোডাক্টিভ বায়োমেডিসিন জার্নালে এ-বিষয়ক গবেষণার সারবস্তু প্রকাশিত হয়েছে। ইসরায়েলের ১০৯ জন পুরুষের মধ্যে চালানো এই গবেষণায় দেখা যায়, যারা চার্জ দেওয়া অবস্থায় ফোনে কথা বলেন তাদের সমস্যা অন্যদের তুলনায় দ্বিগুণ। এই গবেষণায় আরো দাবি করা হয়, মোবাইল ফোনের প্রভাব এতটাই মারাত্মক যে এটি পুরুষের সন্তান জন্মদানের ক্ষমতাকে ধবংস করে দিতে পারে।

তবে মোবাইল ফোন ছাড়া এখন এক মুহূর্তও ভাবা যায় কি? এখন যোগাযোগের সবচেয়ে সহজ মাধ্যম এই ক্ষুদে প্রযুক্তিযন্ত্র। গবেষকরা বলছেন, একটু সাবধান হলে, ক্ষতিকর প্রভাব থেকে সবাই রেহাই পেতে পারে। বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিয়েছেন, সম্ভব হলে ফোন ট্রাউজারের পকেটে রাখা পরিহার করুন।

‘মোবাইল ফোনের তড়িৎ চৌম্বকীয় তরঙ্গ আপনার শুক্রাণু উৎপাদনকে পুরোপুরি নষ্ট করে দিতে পারে’- এই বলে সতর্ক করে দেন রিপ্রোডাক্টিভ মেডিসিনের বিশেষজ্ঞ ডা. রোসেন বারজার। তিনি আরো জানান, ‘পুরুষেরা যদি তাদের ফার্টিলিটি রেট ধরে রাখতে চান তাহলে ফোন চার্জ করার সময় ফোন বন্ধ করে চার্জ দিন। আর যখন আপনি বাবা হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তখন খুব ভালো হয় আপনার শুক্রাশয়ের আশেপাশে ফোনটি না রাখা।’

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন