বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

আর কয়েকদিনের মধ্যেই মরে যাবে একটি ‘ক্ষুদ্রতম

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৩০ পিএম

আর কয়েকদিনের মধ্যেই মরে যাবে একটি ‘ক্ষুদ্রতম

সোনালীনিউজ ডেস্ক
বিশ্ব উষ্ণায়নের প্রভাবে অল্পবিস্তর সারা পৃথিবীই ভুগছে। অনাবৃষ্টি, অতিবৃষ্টি, বন্যা, খরা তো আছেই। সঙ্গে যা সব থেকে বেশি চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে, তাহলাে প্রতিবছর সমুদ্রের জলস্তর বাড়ছে। এর জন্য বিশ্বের অনেক দেশই এখন ধ্বংসের প্রহর গুণছে। যদি একই হারে জল বড়াতে থাকে, তবে মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই পৃথিবী থেকে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে তুভালু।
মাত্র ২৬ বর্গ কিলোমিটার জায়গা নিয়ে তৈরি দেশে ১১ হাজার মানুষ বসবাস করেন। অস্ট্রেলিয়ার কাছে রয়েছে বলে এ দেশে অস্ট্রেলিয়ান ডলার চলে। তার সঙ্গে তুভালু-র নিজস্ব ডলার রয়েছে। প্রধান ভাষা তুভালুয়ান এবং ইংরেজি।
বিশ্বের চতুর্থ ক্ষুদ্রতম দেশ তুভালু। ১৯৭৮ সালে ব্রিটিশ শাসন থেকে মুক্তি পেয়েছে। তবে ১৯৯৩ সালের পর থেকে সমুদ্র পৃষ্ঠের বাড়বাড়ন্তের জন্য প্রতিবছর একটু করে জমি হারাচ্ছে তুভালু। এ নিয়ে জাতিসংঘের কাছে দরবারও করেছেন প্রধানমন্ত্রী এনেল সোপোয়াগা। চলতি মাসে পরিবেশ সম্মেলনে তুভালুকে বাঁচাতে সব দেশই যথাসাধ্য চেষ্টা করবে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। গ্রিন হাউজ গ্যাস নির্গমনের পরিমাণ না কমালে এবং বনাঞ্চল রক্ষায় ব্রতী না হলে শুধু তুভালু নয়, বিশ্বের বহু দেশ আগামী এক দশকের মধ্যে ধ্বংসের দোড়গোড়ায় পৌঁছে যাবে। তার মধ্যে আমেরিকা, ইউরোপ এবং এশিয়ার বহু দেশও রয়েছে। সূত্র: এই সময়

add-sm
Sonali Tissue
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩