শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

আসছে মাইক্রোসফট হলোগ্রাফিক উইন্ডোজ

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

আসছে মাইক্রোসফট হলোগ্রাফিক উইন্ডোজ

ভার্চুয়াল রিয়ালিটি প্রযুক্তিতে বিপ্লব আনতে এবার নতুন পথে হাঁটছে মার্কিন সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফট। কম্পিউটারের জন্য উইন্ডোজ উন্মোচন করে যেমন পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল এই প্রতিষ্ঠান, এবার ভার্চুয়াল রিয়ালিটি প্রযুক্তির ক্ষেত্রেও তেমনটাই প্রয়াস করছে মাইক্রোসফট।

চলতি বছরের ১ জুন তাইপেইয়ে অনুষ্ঠিত কনজিউমার ইলেক্ট্রনিক্স ট্রেড শোতে মাইক্রোসফটের পরবর্তী পরিকল্পনা উন্মোচন করে প্রতিষ্ঠানটি। হলোগ্রাফিক প্লাটফর্মে উইন্ডোজ ব্যবহার করার লক্ষ্যেই কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। আর সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতেই সম্প্রতি হলোলেন্স উন্মোচন করে মাইক্রোসফট, জানিয়েছে সিএনএন।
সবধরনের ডিভাইসের জন্যই হলোগ্রাফিক উইন্ডোজ আনতে যাচ্ছে মাইক্রোসফট।

এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির  উইন্ডোজ এবং ডিভাইস প্রধান টেরি মেয়ারসন বলেন, "সকল আকার এবং পরিমাপের ডিভাইসে ভার্চুয়াল রিয়ালিটি থেকে হলোগ্রাফিক কম্পিউটিং প্রযুক্তিতে উইন্ডোজ আসছে। যেখানে বাস্তব এবং ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ড মিলেছে, সেখান থেকেই নতুন উইন্ডোজ প্লাটফর্ম তৈরি হতে যাচ্ছে। এবং এটিই হবে কম্পিউটিংয়ের ভবিষ্যৎ।"

২০১৫ সালে মাইক্রোসফটের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, তাদের পরবর্তী সফটওয়্যারের ক্ষেত্রে অগমেন্টেড এবং মিক্সড রিয়ালিটি প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো হবে। এবার হলোগ্রাফি এবং ভার্চুয়াল রিয়ালিটিতেই ভবিষ্যৎ দেখছে এই প্রতিষ্ঠানটি। ভিআর এবং এআর প্রযুক্তি পরিপূর্ণতা পেতে এখনো বেশকিছু সময় লাগবে বলে ধারণা করা হলেও, আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই এই ডিভাইসগুলো লাখে লাখে বাজারে আসবে বলেও মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

মাইক্রোসফটের এই হলোগ্রাফিক উইন্ডোজের মাধ্যমে গ্রাহক ভিআর এবং এআর যেই ডিভাইসই ব্যবহার করুক না কেন তারা একই প্লাটফর্মে একে অপরের সঙ্গে কথা বলা ও কাজ করতে পারবে বলেও জানানো হয়। এক্ষেত্রে কেউ যদি হলোলেন্স ব্যবহার করেন এবং অন্যজন এইচটিসি ভাইভ বা অকুলাস ব্যবহার করে থাকেন তবে তারা একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ ও তথ্য আদান প্রদান করতে পারবেন।

ফরেস্টার রিসার্চের দেওয়া তথ্যমতে আগামী চার বছরের মধ্যেই ভিআর হেডসেটের চাহিদা এক কোটি ৭০ লাখে পৌঁছাবে। তবে মাইক্রোসফটের মতে ভিআর এবং এআর ডিভাইসের ক্ষেত্রে এই সংখ্যা হবে আট কোটি। আর সেটিকে পুঁজি করেই এইখাতে বিপ্লব আনার পথেই এগোচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩