শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

আসলামের দুর্নীতি অনুসন্ধান করবে দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

আসলামের দুর্নীতি অনুসন্ধান করবে দুদক

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব এম আসলাম চৌধুরীর শত শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অনুসন্ধান করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।আজ বুধবার কমিশনের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, অনুসন্ধানের তদারককারী কর্মকর্তা হিসেবে থাকছেন পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন। আর উপপরিচালক নাসির উদ্দিনকে অনুসন্ধান কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

আসলাম চৌধুরীর মালিকানাধীন রাইজিং গ্রুপের একাধিক সিএনজি স্টেশন, লবণ কারখানাসহ শত শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ রয়েছে দুদকের কাছে।

ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সঙ্গে কথিত বৈঠকের বিষয়ে নানা আলোচনা–সমালোচনার মধ্যে রবিবার গ্রেফতার হন বিএনপির নবনিযুক্ত যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরী। ১৬ মে তাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ ১০ দিনের রিমান্ড চাইলে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

আদালতে জমা দেওয়া পুলিশের রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আসলাম চৌধুরী গত ৫ থেকে ৯ মার্চ বাংলাদেশের সরকারকে উৎখাতের ষড়যন্ত্রের কাজে ভারতে যান। তিনি ভারতে থাকার সময় বাংলাদেশের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক বহির্ভূত রাষ্ট্র ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের এজেন্ট মেন্দি এন সাফাদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। নির্বাচিত সরকারকে উৎখাতের জন্য বিভিন্ন ষড়যন্ত্রের নীলনকশা করেন। এই নীলনকশা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবেই সরকারকে অবৈধভাবে উৎখাতের জন্য সন্ত্রাস, নাশকতা, ঘৃণা ও বিদ্বেষ সৃষ্টির উদ্যোগ গ্রহণ করেন; যা দেশের অখণ্ডতা, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি হুমকি ও রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল।
বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য বিভিন্ন পরামর্শ ও পরিকল্পনা গ্রহণ করেন এবং এ জন্য মোসাদের সহযোগিতা চান আসলাম চৌধুরী।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/মে

 

add-sm
Sonali Tissue
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩