শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

উচ্চ মাত্রার কোলেস্টরলযুক্ত যে খাবারগুলো এড়িয়ে চলু

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৪ পিএম

উচ্চ মাত্রার কোলেস্টরলযুক্ত যে খাবারগুলো এড়িয়ে চলু

সোনালীনিউজ ডেস্ক

আমাদের দেহের জন্য উচ্চ মাত্রার কলেস্টোরলযুক্ত খাবার অনেক বেশি খারাপ। সাধারণত কিছু ভালো কলেস্টোরল রয়েছে যা দেহের জন্য ভালো, কিন্তু উচ্চ মাত্রার কলেস্টোরল দেহের জন্য মোটেও ভালো নয়।

উচ্চ মাত্রার কলেস্টোরল হৃদপিণ্ডের সমস্যা এবং কার্ডিওভ্যস্ক্যুলার সমস্যা জনিত রোগের জন্য দায়ী। তাই আমাদের নিজেদের সুস্থতার জন্য খাদ্যতালিকার প্রতি নজর রাখা অত্যন্ত জরুরী।

কিছু কিছু খাবার রয়েছে যার মধ্যে অন্যান্য অনেক পুষ্টিগুণ থাকলেও পাশাপাশি রয়েছে উচ্চমাত্রার কলেস্টোরল। আমাদের হৃদপিণ্ড এবং দেহের সুস্থতার জন্য এই খাবারগুলো এড়িয়ে চলার অভ্যাস করতে হবে। কিংবা একেবারেই কমিয়ে খেতে হবে। চলুন তবে চিনে নেয়া যাক উচ্চ মাত্রার কলেস্টোরলযুক্ত এই খাবারগুলোকে।

  • ডিমের কুসুম:

ডিম প্রোটিনের অনেক ভালো উৎস হলেও ডিমের কুসুম উচ্চ মাত্রার কলেস্টোরলযুক্ত খাবার। মাত্র ১০০ গ্রাম ডিমের কুসুমে পায়র ১২৩৪ মিলিগ্রাম কলেস্টোরল রয়েছে। মাত্র একটি ডিমের কুসুমে রয়েছে ২১০ মিলিগ্রাম কলেস্টোরল। তাই, যদি সকালে পুরো ডিম খাওয়া হয় তবে দিনে অন্যান্য কলেস্টোরল যুক্ত খাবার না খাওয়াই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

  • ফাস্ট ফুড জাতীয় খাবার:

ফাস্টফুড জাতীয় খাবার অনেক উচ্চ মাত্রার কলেস্টোরল সমৃদ্ধ তা সকলেই জানেন। কিন্তু এই জানাটা অনেকেই কাজে লাগান না। বেশ মজা নিয়ে ফাস্টফুড খান অনেকে। কিন্তু মাত্র ১০০ গ্রাম যে কোনো চীজ ও ডিম দেয়া ফাস্টফুডে ২৪৬ মিলিগ্রাম কলেস্টোরল থাকে।

  • গরুর কলিজা:

আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের মতে একজন পূর্ণ বয়স্ক মানুষের দিনে ৩০০ মিলিগ্রামের ওপরে কলেস্টোরল যুক্ত খাবার না খাওয়াই ভালো। কিন্তু মাত্র ৮৫ গ্রাম গরুর কলিজায় কলেস্টোরল রয়েছে ৩৩১ গ্রাম। সুতরাং গরুর কলিজা খাওয়ার সময় পরিমাণের ওপর একটু ভালো করে নজর রাখুন।

  • বাটার:

সকালের নাস্তায় পাউরুটির সাথে অনেকেই মজা করে বাটার খেয়ে থাকেন। কিন্তু এই বাটার উচ্চ কলেস্টোরল সমৃদ্ধ খাবার। ১০০ গ্রাম বাটারে ২১৫ মিলিগ্রাম কলেস্টোরল থাকে। মাত্র ১ চা চামচ বাটারে ৩০ মিলিগ্রাম। তাই সকালের নাস্তায় ডিম এবং বাটার খাওয়ার অভ্যাসটা বদলাতে হবে।

  • চিংড়ি:

আমরা চিংড়িমাছ অনেক মজা করে খেয়ে থাকি। কিন্তু অনেকেই জানি না চিংড়িও একটি উচ্চ কলেস্টোরল সমৃদ্ধ খাবার। ১০০ গ্রাম চিংড়িতে ১৯৫ মিলিগ্রাম কলেস্টোরল রয়েছে। আমাদের অনেকেই চিংড়ি খাওয়ার সময় হিসাব করে খাই না, কিন্তু আজকে থেকে একটু হিসাব করেই খান।

  • চীজ:

চীজ অনেকেরই বেশ প্রিয় একটি খাবার। বিশেষ করে যারা নিরামিষভোজী তারা চীজ বা পনিরটা একটু বেশিই খেয়ে থাকেন। কিন্তু চীজও একটি উচ্চ কলেস্টোরল যুক্ত খাবার। যা থেকে দূরে থাকাই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। মাত্র ১০০ গ্রাম চীজ বা পনিরে রয়েছে ১২৩ মিলিগ্রাম কলেস্টোরল।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩