শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

উপকূলে কমেছে সূর্যমুখির আবাদ

বরগুনা প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

উপকূলে কমেছে সূর্যমুখির আবাদ

নানা প্রতিবন্ধকতায় উপকূলীয় জেলা বরগুনায় কমেছে সূর্যমুখি ফুলের আবাদ। গত বছরের তুলনায় এ বছর প্রায় ১শ’ হেক্টর কম জমিতে আবাদ হয়েছে সূর্যমুখির। উপকূলীয় জেলা হিসেবে বরগুনায় লবণ সহিঞ্চু ফসল সূর্যমুখির আবাদ যেখানে বারানো দরকার, সেখানে এ বছর আবাদ কমায় পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

গত দুই থেকে তিন বছর আগে জেলার বিভিন্ন ফসলি জমিতে দেখা মিলতো একরের পর একর সূর্যমুখি ফুলের আবাদ। কিন্তু এ বছর পাল্টে গেছে এ চিত্র। বিভিন্ন এলাকায় খণ্ড খণ্ড জমিতে আবাদ হচ্ছে সূর্যমুখি ফুলের। ভালো ফলন হওয়া সত্ত্বেও কৃষকরা কেনো সূর্যমুখি আবাদ কমিয়েছে এ প্রশ্নের জবাবে একাধিক কৃষক বলেন, এক সময়ে এ জেলার কৃষকরা সূর্যমুখি চাষ করতো না। গত কয়েক বছর বেশ কিছু সেচ্ছাসেবী সংগঠন কৃষকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সূর্যমুখি ফুল চাষে উদ্বুদ্ব করেন। সূর্যমুখির বিচি ও চাষ পদ্ধতি সম্পর্কেও ধারণা দেন তারা। কিন্তু এ বছর সূর্যমুখি ফুল চাষে এগিয়ে আসেনি কোনো সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

পাথরঘাটা উপজেলার কালমেঘা গ্রামের কৃষক আব্দুল মালেক জানান, গত বছর প্রায় ৩ একর জমিতে চাষ করেন সূর্যমুখির। ব্যাপক ফলন হলেও সূর্যমুখির বিচি নিয়ে বিপাকে পরেন তিনি। এর আগের বছর সেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো বিচি বিক্রির ব্যবস্থা করলে গত বছর প্রজেক্ট শেষ হয়ে যাওয়ায় তারা কোনো সহযোগিতা করেনি তাকে। তাই এ বছর পরিবারে যতটুকু তেল দরকার সে অনুযায়ী জমিতে সূর্যমুখি চাষ করেছেন তিনি।

এদিকে সূর্যমুখির বিচি থেকে যে তেল পাওয়া যায় সেটি শোধন না করা গেলে এই তেল বেশি সময় ব্যবহার উপযোগী থাকে না। কয়েক মাসের মধ্যেই তেলে দুর্গন্ধ তৈরি হয়।

বরগুনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের এনভায়রনমেন্টাল টেকনোলজির বিভাগীয় প্রধান বিশ্বজিৎ কুমার বিশ্বাস বলেন, প্রকৃতিক দুর্যোগে বরগুনার বিভিন্ন স্থানে বেড়িবাঁধ ভেঙে গেছে। ভাঙা বাঁধ দিয়ে প্রতিনিয়তই ফসলি জমিতে লবণ পানি ঢুকছে। শুধু ফসল নয় এই লবণ পানির প্রভাব পরছে সকল উদ্ভিদকূলের উপর। বিপর্যস্থ হচ্ছে পরিবেশ। এইসব এলাকায় লবণ সহিঞ্চু ফসল বারানো দরকার। সে ক্ষেত্রে সূর্যমুখি চাষের বিকল্প নেই।

বরগুনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাইনুর আজম খান বলেন, তেল শোধনাগার স্থাপনের জন্য মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩