রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

ওয়াইফাই নিরাপদ করতে নতুন আইন

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

ওয়াইফাই নিরাপদ করতে নতুন আইন

উন্মুক্ত জায়গায় বিনামূল্যে ওয়াইফাই সুবিধা দেওয়ার ক্ষেত্রে ঝুঁকি দূর করতে নতুন খসড়া আইন করেছে জার্মানি। ৩১ মে দেশটির শাসকজোটের ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে খসড়াটি।

রয়টার্সের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, জার্মানির অনেক ক্যাফে এবং রেস্টুরেন্টে বর্তমানে ওয়াইফাই সেবা সীমাবদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কপিরাইটের আইন ভঙ্গের মতো অপরাধসহ ব্যবহারকারীরা ওয়াইফাই ব্যবহার করে যাতে কোনো অবৈধ কার্যক্রমে অংশ নিতে না পারে সেজন্য এই ব্যবস্থা।

নতুন আইনটি পাশ হলে ওয়াইফাই সেবাদাতা কোনো ব্যবহারকারীর অবৈধ কাজের জন্য দায়ী থাকবে না। যদি কোনো ব্যবহারকারী তাদের ওয়াইফাই ব্যবহার করে চুরি করা গানের মতো কন্টেন্ট ডাউনলোড করে তাহলে তার ভার ব্যবহারকারীই বহন করবে। নতুন এই আইনের মাধ্যমে ওয়াইফাই সেবাদাতা ব্যবহারকারীর অপরাধের জন্য, এমনকি হয়রানির হাত থেকেও রক্ষা পাবেন।

নতুন এই আইনের সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য চ্যান্সেলর এঙ্গেলা মের্কেল-এর ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটস (সিডিইউ) এবং সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটস (এসপিডি) দলের মধ্যে মাসের পর মাস তর্ক-বিতর্ক হয়েছে।

আগের আইন অনুযায়ী ওয়াইফাই সেবাদাতাকে তার কানেকশন একটি স্পর্শ পেইজ বা পাসওয়ার্ড দিয়ে রক্ষা করতে বলা হত। সমালোচকেরা এই পদ্ধতিকে ব্যবহারকারীদের জন্য কষ্টকর এবং অনুৎপাদক বলে আখ্যায়িত করেছেন। জার্মানির পাবলিক ওয়াইফাই এর দুর্দশার কারণ হিসেবে কঠোর আইনি ব্যবস্থাকে দায়ী করেছেন অনেকে।

উন্নত ইন্টারনেট সেবাকে ধরা হয় জার্মানির তথাকথিত ডিজিটাল উদ্যোগের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ওই উদ্যোগের লক্ষ্য হল ২০১৮ সালের মধ্যে সব বসবাসকারীকে সেকেন্ডে ৫০ মেগাবিটস  ইন্টারনেট সেবা প্রদান করা।

তবে ইউরোপে গড়ে প্রতি ১০ হাজার অধিবাসীর জন্য মাত্র ১.৮৭টি ওয়াইফাই হটস্পট রয়েছে। যেখানে দক্ষিণ কোরিয়ায় রয়েছে ৩৭.৩৫টি, ব্রিটেনে ২৮.৬৭ টি এবং সুইডেনে ৯.৯৪টি।

আইনটি চূড়ান্তের ব্যাপারে জার্মান লোয়ার হাউস অফ পার্লামেন্ট বৃহস্পতিবারে ভোট প্রদান করবে। আশা করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই আইনটির বাস্তবায়ন করা যাবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩