সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

শাহজালাল ব্যাংকের গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত

কর্পোরেট ট্যাক্স কমানোর কথা ভাবছে সরকার

বিশেষ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

কর্পোরেট ট্যাক্স কমানোর কথা ভাবছে সরকার

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, কর্পোরেট ট্যাক্স ১০ শতাংশ থেকে এক লাফে বেড়ে ৩৫ শতাংশ হওয়াটা অযৌক্তিক এবং বেমানান। এই ট্যাক্স কমানোর কথাও ভাবছে সরকার। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ভ্যাট কমানো বা বাড়ানোর আগে অবশ্যই ব্যবসায়ীদের কথা মাথায় রাখে সরকার। আসছে বাজেটে ভ্যাট নিয়ে অসন্তুষ্ট হবেন না-ব্যবসায়ীদের আশ্বস্ত করেন মন্ত্রী।

বুধবার (১৮ মে) রাত সাড়ে ৯টায় রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের (এসজেআইবিএল) গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শাহজালাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান এ কে আজাদ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন  ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরমান আর চৌধুরী, এছাড়া গ্রাহকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন বিজিএমইএ-এর সাবেক সভাপতি ও এনভয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুস সালাম মুর্শেদী, ইনস্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ কবীর হোসেন, বেঙ্গল গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান জসীম উদ্দীন, ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস এর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আবদুল মুক্তাদির, বিজিএমইএ-এর প্রেসিডেন্ট সিদ্দিকুর রহমান, এফবিসিসিআই সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমদ, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন চৌধুরী, ওপেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান সিনহাসহ অনেকে। অনুষ্ঠানে এদের অনেকেই শাহজালাল ব্যাংকের সেরা গ্রাহক হিসেবে সম্মাননা পান।

অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান ও ইউনুছ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ইউনুছ। অনুষ্ঠানে ব্যাংকের পরিচালকবৃন্দ, প্রধান কার্যালয়ের নির্বাহীবৃন্দ এবং ব্যাংকের গ্রাহক ও শুভানুধ্যায়ীগণ উপস্থিত ছিলেন। গ্রাহক সমাবেশের এই অনুষ্ঠানে ২৬ জন সেরা গ্রাহককে ক্রেস্ট দিয়ে বিশেষ সন্মাননা দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে বিশাল আকৃতির একটি কেকও কাটা হয়। তাছাড়া ব্যাংকের সিএসআর কার্যক্রমের আওতায় বিশেষ সিএসআর কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ২১টি স্কুলে স্বয়ংসম্পূর্ণ কম্পিউটার ল্যাব প্রতিষ্ঠায় ইন্টারনেট সুবিধাসহ প্রতি স্কুলকে দুই সেট করে কম্পিউটার প্রদান করা হয়।

ব্যাংকের চেয়ারম্যান এ কে আজাদ বলেন, বর্তমান সময়ে ব্যাংকিং সেক্টরে তীব্র প্রতিযোগিতা চলছে। এই প্রতিযোগিতায় সবধরনের সূচকে শাহজালাল ব্যাংক এগিয়ে যাচ্ছে। ব্যাংকিং সেক্টরে প্রধান সমস্যা খোলাপি ঋণ। এটি দিন দিন বাড়ছে। খেলাপি ঋণ কমাতে না পারলে দেশের জাতীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব হবে না। খেলাপি ঋণ আদায়ে সরকারের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন এ কে আজাদ। এছাড়া তিনি শাহজালাল ব্যাংকের সার্বিক অগ্রগতিতে গ্রাহকদের আন্তরিক সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ জানান।

এর আগে স্বাগত বক্তব্যে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরমান আর চৌধুরী বলেন, শাহজালাল ব্যাংক বর্তমানে একটি সুদৃঢ় আর্থিক ভিতের উপর অবস্থান করছে। তিনি জানান, বর্তমানে ব্যাংকটির মোট ইকুইটি ১,৩৬৬.৬৯ কোটি টাকা। ব্যাংকের মোট সম্পদ ১৪,৯৬৬ কোটি টাকা। আমানত ১১,৫০১ কোটি টাকা আর বিনিয়োগ ১০,৪৩১ কোটি টাকা। চলতি বছরের প্রথম চার মাসে আমদানি বাণিজ্য ৩,২২৮ কোটি টাকা এবং রফতানি বাণিজ্য ২,৮৬৯ কোটি টাকা।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআরসি/এমটিআই

add-sm
Sonali Tissue
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩