বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫ পৌষ ১৪২৫

কোন্দল থামনোই আ.লীগের বড় চ্যালেঞ্জ

বিশেষ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার ১১:১৫ এএম

কোন্দল থামনোই আ.লীগের বড় চ্যালেঞ্জ

ঢাকা : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের তৃণমূলে কোন্দল দৃশ্যমান হয়ে উঠেছে। কিছু নেতার আচরণে নষ্ট হচ্ছে দলের ভাবমূর্তি। এ নিয়ে চিন্তিত দলের হাইকমান্ড।

এদিকে, সরকারের শেষ সময়ে এমন ঘটনা অব্যাহত থাকলে আগামী জাতীয় নির্বাচনে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাদের মতে, আভ্যন্তরীণ কোন্দল মেটানোই এখন আওয়ামী লীগের সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দেখা দিয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আর খুব বেশি দেরি নেই। যদিও তফসিল ঘোষণা করা হয়নি তবে সংবিধান অনুযায়ী আগামী ডিসেম্বরের শেষে অথবা জানুয়ারির প্রথম দিকে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। আর চলতি মাসের শেষ নাগাদ  অথবা  নভেম্বরের প্রথম দিকে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অধিকাংশ আসনেই আওয়ামী লীগের একাধিক মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন। তারা নিজ নিজ এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণাও চালাচ্ছেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে চলছে ঠান্ডা লড়াই।

আওয়ামী লীগ নেতাদের ভাষ্য অনুযায়ী, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে দলীয় নেতাদের মাঝে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থেকে একধরনের কোন্দল-সংঘাত দেখা দিয়েছে। সেই কোন্দল নিরসন করে ঐক্যবদ্ধ দল গঠনের চেষ্টা চলছে। পাশাপাশি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য দলীয় প্রস্তুতিও চলছে।

দলটির ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী, গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে রাজধানীতে গণসংযোগ কর্মসূচি পালন করছে আওয়ামী লীগ। এ কর্মসূচির মাধ্যমে দলীয় নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত রাখার পাশাপাশি মাঠ নিজেদের নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি দৃশ্যমান বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

গত ৩০ আগস্ট বিমানে করে সিলেট সফরে যান আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দল। সফরে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের মাঝে দ্বন্দ্ব দূর করার কথা বলেন কেন্দ্রের নেতারা। গত ৮ সেপ্টেম্বর ট্রেনযোগে উত্তরবঙ্গে নির্বাচনী প্রচারে যান আওয়ামী লীগ নেতারা।

‘নীলসাগর এক্সপ্রেস’ করে ঢাকা থেকে নীলফামারী যাওয়া প্রতিনিধি দলটি টাঙ্গাইল, পাবনার ঈশ্বরদী, নাটোর, বগুড়ার সান্তাহার, আক্কেলপুর, জয়পুরহাট, দিনাজপুরের বিরামপুর, ফুলবাড়ি, পার্বতীপুর ও নীলফামারীর সৈয়দপুর স্টেশনে পথসভা করে। পথসভায় তৃণমূল নেতাদের মধ্যে বিরোধ দূর করে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

এছাড়া গত ২২ সেপ্টেম্বর সড়ক পথে কুমিল্লা, চৌদ্দগ্রাম, ফেনী ও চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার যাওয়ার পথে কর্ণফুলী, লোহাগড়া, চকরিয়া ও কক্সবাজার ঈদগাহে পথসভা করে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল। ওই সফরেও নৌকার পক্ষে ভোট চাওয়ার পাশাপাশি কোন্দল মেটানোর নির্দেশ দেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

বিগত তিন মাসে বিভিন্ন জেলায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের সফর সম্পর্কে দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘নেতাকর্মীরা নির্বাচনকে ঘিরে উজ্জীবিত হচ্ছেন। নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিএনপি-জামায়াতের চেষ্টার বিরুদ্ধে আমাদের রাজনৈতিক বক্তব্যগুলো তুলে ধরছি। পাশাপাশি বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডগুলো তুলে ধরা হচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা একটা নির্বাচনী উৎসবের পরিবেশ তৈরি করছি।’

এছাড়া নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে ততই বিভিন্ন ইস্যুতে আওয়ামী লীগের তৃণমূলে দলীয় কোন্দল প্রকট হয়ে উঠছে। নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে দলটির তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। এসব ঘটনায় দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে অনেককে। কোন্দলে ১ সপ্তাহে ৬ জন নিহত হয়েছেন।

টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (মাভাবিপ্রবি) শিক্ষকদের লাঞ্ছনার ঘটনায় জড়িত বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সজীব তালুকদারসহ ৫ নেতাকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। গত সোমবার রাতে ঢাকার রিজেন্ট বোর্ডে এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে তাদেরকে বহিষ্কার করা হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আওয়ামী লীগ নেতাসহ ২০ জন আহত হয়েছেন। গত রবিবার বেলা ১১টায় সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আওয়ামী লীগ নেতা হাজী ইকবাল হোসেন ও আবু বকর আহত হয়েছেন।

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে মো. শাকিল (২২) নামে এক ছাত্রলীগ কর্মীকে অপহরণের পর পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার সকালে চৌদ্দগ্রামের মদিনা বাসস্ট্যান্ড থেকে তাকে অপহরণ করে ৮/১০ জনের একটি গ্রুপ। পরে ফেনীর শর্শদী দীঘির পাড় থেকে মারাত্মক আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান তিনি। নোয়াখালীর চৌমুহনীতে দলীয় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবলীগের দুই গ্রুপের মধ্যকার সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

কিশোরগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। আহতদের মধ্যে ৬ জন গুলিবিদ্ধ। প্রেসিডেন্টের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মোটরবহর নিয়ে যাওয়ার পথে ভৈরব কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের আচমিতা নামক স্থানে এমপি অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিন গ্রুপ এবং আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ড. জায়েদ মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়।

সম্মান প্রথম বর্ষে ভর্তি ইচ্ছুক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ছাত্রলীগের দুই কর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কার হওয়া ছাত্রলীগের দুই কর্মী হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের দ্বিতীয় সেমিস্টারের ছাত্র জয়নুল আবেদীন ও মোবারক। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মোস্তফা কামাল বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ফরিদপুরে বোয়ালমারী উপজেলার পরমেশ্বরদী গ্রামে কৃষক লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে এক কিশোর নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৫ জন। ৫ অক্টোবর সকালে এ ঘটনা ঘটে। মাদারীপুরের কালকিনিতে দু’পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে ককটেল বিস্ফোরণে খবির মৃধা নামে এক ইউপি সদস্য নিহত হয়েছেন। উভয়পক্ষই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে জানা গেছে।

৩ অক্টোবর নরসিংদী সদর উপজেলার চরাঞ্চল করিমপুরে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের টেঁটাযুদ্ধে ২ জন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- আনোয়ার আলী (৪৫) ও মোতালিব মিয়া (৪০)। ৪ অক্টোবর চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি গঠন নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। কলেজ ক্যাম্পাসে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের এক সদস্যসহ ৫ জন আহত হয়েছেন।

১ অক্টোবর বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ২ জন নিহত হয়েছে। নিহতরা হলেন- দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী শিকদার (৫৩) ও শুকুর আলী শেখ (৪৫)। ২ অক্টোবর ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আল-বেরুনী ও মীর মোশাররফ হোসেন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষের ঘটনায় উভয় হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীসহ অন্তত ২০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘ছাত্রলীগের নানাবিধ কর্মকাণ্ডে আমি বিব্রত হচ্ছি। ছাত্রলীগ যেভাবে কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে তা নিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে। এটা স্বীকার করতে আমার কোনো কুণ্ঠা বোধ নেই।’

গত সোমবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (টিএসসিসি) ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শিল্পকর্ম প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই