বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৭, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

গেজেট থেকে মুক্তিযোদ্ধা বাদ বিষয়ে হাইকোর্টে রুল

সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

গেজেট থেকে মুক্তিযোদ্ধা বাদ বিষয়ে হাইকোর্টে রুল

গেজেটভুক্ত ৪ শত ৭৯ নৌমুক্তিযোদ্ধাদের মধ্য থেকে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানার ২২ মুক্তিযোদ্ধার নাম বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এই সিদ্ধান্তের কার্যকারিতা স্থগিত করেছেন আদালত।

বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী এবং বিচারপতি মো. খসরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিতহাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেন।

রিটে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিবাদি করা হয়েছে এবং গাইবান্ধা জেলা প্রশাসককে পক্ষ করা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে ছিলেন, ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম। তাকে সহায়তা করেন ব্যারিস্টার গালিব আমিদ। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নী জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

মুক্তিযুদ্ধকালীন ২২ রিট আবেদনকারীসহ ৪৭৯ জন মুক্তিযোদ্ধাগণ ভারত হতে নৌকমান্ডো ট্রেনিং সম্পন্ন করে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন।

স্বাধীনতাত্তোরকালে ৭ সদস্য বিশিষ্ট জাতীয় কমিটি বিগত ২০০১ সালে নৌকমান্ডো মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা চূড়ান্ত করে। পরবর্তীতে ২০০৪ সালের ১৫ জুন এবং ২০০৫ সালের ১৭ এপ্রিল ৪৭৯ জন নৌকমান্ডোদের নাম মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে গেজেটভুক্ত করা হয় এবং ওই সময় হতে তারা নিয়মিত মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা পেয়ে আসছেন।

কিন্তু প্রভাবশালী ব্যক্তির রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল গত ৭ এপ্রিল রিট আবেদন কারীসহ ২৪ জন মুক্তিযোদ্ধার নাম কর্তনের সিদ্ধান্ত নেয়। উক্ত সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু হান্নান সরকারসহ ২২ মুক্তিযোদ্ধা গত ৮ মে হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের করেন।

সে রিটের শুনানি করে আজ আদালত এ আদেশ দেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue