মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

গ্রন্থমেলায় নতুন বইয়ের পাশাপাশি বাড়ছে ক্রেতা-দর্শন

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৪ পিএম

গ্রন্থমেলায় নতুন বইয়ের পাশাপাশি বাড়ছে ক্রেতা-দর্শন

নিসা জান্নাত

গতকাল মেলা ঘুরে দেখা যায় গ্রন্থপ্রেমীদের উপস্থিতি যথেষ্টই ছিল, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুপুর থেকেই মানুষের পদচারণ। ক্রেতা ও দর্শনার্থী স্টল ঘুরে খোঁজ নিচ্ছেন তাদের পছন্দের বই। পাশাপাশি ক্রয় করছে প্রিয় লেখকের বইটি। গতবার রাজনৈতিক অস্থিরতায় মেলায় দর্শনার্থীর সংখ্যা হাতে গোনা থাকলেও এবার ভিন্ন চিত্র। প্রতিদিনই মেলায় বাড়ছে নতুন বইয়ের সংখ্যা, বাড়ছে ক্রেতা-দর্শনার্থীর ভিড়। সব মিলিয়ে এবারের বইমেলা নিয়ে শুরুতেই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্ট সবাই।
অমর একুশে গ্রন্থমেলার প্রথম দিন ঠিক কয়টি নতুন বই এসেছিল, তা জানা না গেলেও দ্বিতীয় দিন বাংলা একাডেমি মাত্র সাতটি নতুন বইয়ের খবর দেয়। এরপর থেকেই বাড়তে থাকে নতুন বইয়ের সংখ্যা। বাংলা একাডেমির তথ্য মতে, তৃতীয় দিন নতুন বই এসেছিল মোট ৬৩টি। চতুর্থ দিন ৯৩টি। পঞ্চম দিন সাপ্তাহিক ছুটির দিনে সেই সংখ্যা একলাফে বেড়ে ২৫৬টিতে দাঁড়ায়। মেলার ষষ্ঠ দিন গতকাল আসে ১৫৫টি নতুন বই। তবে বাংলা একাডেমির তথ্যের বাইরে আরো নতুন বই মেলায় এসেছে।
প্রকাশনা সংস্থাগুলো জানিয়েছে, সব নতুন বইয়ের খবর বাংলা একাডেমি পর্যন্ত পৌঁছায় না!
গ্রন্থমেলায় শুক্রবারের মতো গতকালও ছিল শিশুপ্রহর। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত শিশু-কিশোর ও তাদের অভিভাবকদের পদচারণে মুখর ছিল বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ।
বাংলা একাডেমির তথ্য মতে, গতকাল পর্যন্ত বিভিন্ন প্রকাশনা সংস্থা মোট ২৮টি নতুন শিশুতোষ বই মেলায় এনেছে। তবে প্রকাশনা সংস্থাগুলো থেকে জানা যায়, এর সংখ্যা পঞ্চাশের অধিক।

সোনালীনিউজ/এইচএআর

add-sm
Sonali Tissue
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩