শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

গয়েশ্বরের বাড়ির দরজা-জানালা ভেঙেছে পুলিশ!

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার ০৬:৪৬ পিএম

গয়েশ্বরের বাড়ির দরজা-জানালা ভেঙেছে পুলিশ!

ঢাকা: পুলিশের বিরুদ্দে নিজ বাড়ির দরজা-জানালর কাঁচ ভাঙার অভিযোগ উঠিয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, তার বাসভবনের সামনে পূজা উদযাপন কমিটির প্রস্তুতি সভা ও দুঃস্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ কর্মসূচিতে হামলা পুলিশ হামলা চালিয়েছে।

বৃহস্পতিবার(১৪ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন দলটির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য।

গয়েশ্বর বলেন, কেরানীগঞ্জের আমার বাসভবনে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও আমার পুত্রবধু নিপুণ রায়ের তত্ত্বাবধানে পুজা উদযাপন কমিটির প্রস্তুতি সভা ও দুঃস্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ কর্মসূচিতে রাষ্ট্রের পুলিশ বাহিনী দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে।

তিনি বলেন, হামলাকারী পুলিশ সদস্যরা ইট-পাটকেল ছুঁড়ে আমার বাড়ির কাঁচের জানালা-দরজা ভাঙচুর করে এবং বাড়ির আঙ্গিনা থেকে নেতা-কর্মীদের তিনটি মোটরসাইকেল নিয়ে যায়। শুধু তাই নয়, আমার পুত্রবধু নিপুণ রায়সহ সভাস্থলে আসা ব্যক্তিদের দীর্ঘক্ষণ অবরুদ্ধ করে রাখে পুলিশ।

এতে প্রমাণিত হলো দেশে আইনের শাসনের ছিটেফোঁটাও অবশিষ্ট নেই। আওয়ামী লীগ সরকার দেশের মানুষকে শান্তি, স্বস্তি, স্থিতির বদলে অশান্তি ও নৈরাজ্যের আগুন জ্বালাচ্ছে। পাশাপাশি নতুন নতুন অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্ম দিয়ে জনদৃষ্টিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার যে দক্ষতা দেখিয়েছে তা নজীরবিহীন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সরকার জনগণের অধিকার কেড়ে নিয়েছে মন্তব্য করে গয়েশ্বর বলেন, রাষ্ট্রক্ষমতা কুক্ষিগত রাখতে দেশের সকল রাজনৈতিক দল বিশেষ করে বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার রোডম্যাপ বাস্তবায়নের পথে দ্রুততার সাথে এগিয়ে যাচ্ছে সরকার।

তারা (আওয়ামী লীগ নেতারা) ১/১১ এর সরকারের দায়ের করা মামলাগুলো আদালতকে ব্যবহার করে কৌশলে প্রত্যাহার করে নিলেও প্রতিহিংসা এবং জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করতে বিএনপির বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট মামলাগুলো জিইয়ে রেখেছে।

গয়েশ্বর নিজের বাসভবনে পুলিশি আক্রমণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। একই সঙ্গে অবিলম্বে এ ধরনের ঘৃণ্য পুলিশি হামলার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আতা