বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

চমক নিয়ে এল স্যামসাং

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৪ পিএম

চমক নিয়ে এল স্যামসাং

সোনালীনিউজ ডেস্ক

স্যামসাং এর স্মার্টফোন পরিবারে যোগ হলো আরো দুটি অত্যাধুনিক ডিভাইস। সম্প্রতি স্পেনের বার্সেলোনাতে আয়োজিত মোবাইল ওয়াল্ড কংগ্রেসে নতুন এই দুইটি ফোন উন্মোচন করে স্যামসাং। 
ফোন দুটির মডেল হচ্ছে ‘স্যামসাং গ্যালাক্সি এস সেভেন’ ও ‘গ্যালাক্সি এস সেভেন এজ’।
নতুন এই স্মার্টফোন দুটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্যামসাং এর মোবাইল কমিশন বিজনেসের প্রধান কর্তা ডিজে কোহ এবং ফেসবুক সিইও মার্ক জুকারবার্গ উপস্থিত ছিলেন। 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ডিজে কোহ বলেন, ‘আমরা একটি আলোয় ভরা পৃথিবী দেখতে চাই। যেখানে মানুষের জন্য থাকবে প্রযুক্তির আরো উন্নত সুবিধাগুলো। আর এ লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে স্যামসাং। তার ধারাবাহিকতায় এবারও স্যামসং তার গ্রাহকদের জন্য অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধাসহ গ্যালাক্সি এস সেভেন ও গ্যালাক্সি এস সেভেন এজ নামের দুটি স্মার্টফোন উন্মোচন করেছে। আশা করি মোবাইল দুটি গ্রাহকদের স্মার্টফোন ব্যবহারে নতুন অভিজ্ঞতা দেবে।’
নতুন উন্মোচন হওয়া গ্যালাক্সি এস সেভেনের ডিসপ্লে ৫.১ ইঞ্চি এবং এস সেভেন এজের ৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লেতেই ব্যবহৃত হয়েছে কোয়াড এইচডি সুপার অ্যামোলিড ডিসপ্লে। যার রেজুলেশন রয়েছে ২৫৬০ x ১৪৪০ পিক্সেল।
ফোন দুইটি অ্যানড্রয়েড মার্সম্যালো অপারেটিং সিস্টেমে চলবে বলে জানিয়েছে নির্মাতা প্রতিষ্টান। ডুয়েল কোর মানের দুটি এবং কোয়াড কোর মানের ২টি প্রসেসরের ক্ষমতা দেয়া হয়েছে ফোনগুলোতে। আর এতে ব্যবহৃত হয়েছে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮২০ অথবা এক্সিনস ৮৮৯০ চিপসেট। দুটি ফোনেই পাওয়া যাবে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ এবং ৬৪ জিবির অভ্যন্তরীন মেমোরি। এছাড়া মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ২০০ জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নেয়ার ক্ষমতা তো থাকছেই। 
দুটি ফোনের পিছনের ক্যামেরায় ব্যবহার করা হয়েছে ১২ মেগা পিক্সেল এবং সামনের ক্যামেরায় ব্যবহার করা হয়েছে ৫ মেগা পিক্সেল ক্ষমতা সম্পন্ন ক্যামেরা। এছাড়াও গ্যালাক্সি এস সেভেন এ রয়েছে ৩ হাজার মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি আর গ্যালাক্সি এস সেভেন এজে রয়েছে ৩ হাজার ৬০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। এই ব্যাটারিগুলো আবার কুইক চার্জ ৩.০ চার্জিং সিস্টেমে চার্জ হবে। 
ফলে ৮৩ শতাংশ চার্জ হতে ফোনগুলো সময় নেবে মাত্র ৩০ মিনিট। কালো, সাদা, সোনালী এবং রুপালী মোট চারটি রঙে পাওয়া যাবে ফোন দুটি। আন্তর্জাতিক বাজারে ফোন দুটির মূল্য ধরা হয়েছে যথাক্রমে ৭৭৫ ডলার ও ৮৮৫ ডলার পর্যন্ত। যা ভ্যাট ও ট্যাক্স ব্যতীত বাংলাদেশি টাকায় খরচ করতে হবে যথাক্রমে ৬২ হাজার টাকা ও ৭০ হাজার ৮০০ টাকা।

সোনালীনিউজ/আমা

add-sm
Sonali Tissue
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩