শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

চালু হচ্ছে দীর্ঘতম সুরঙ্গ পথ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

চালু হচ্ছে দীর্ঘতম সুরঙ্গ পথ

বিশ্বের দীর্ঘতম সুরঙ্গ পথ ‌‘গোটার্ড টানেল’ চালু হতে যাচ্ছে আগামী জুনের শুরুতেই। যাতে দীর্ঘতম সুরঙ্গপথের তকমা হারাতে যাচ্ছে চীনের ট্যানেল সিকান।

সুইজারল্যান্ডে নির্মিত গোটার্ড টানেল কর্তৃপক্ষের আশা, পর্যটকদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠবে এটি। চীনের নির্মাণ করা প্রায় ৫৪ কিলোমিটারের সিকান ট্যানেলটিই এতোদিন ছিল বিশ্বের দীর্ঘতম সুরঙ্গ পথ। তবে সেই জায়গা কেড়ে নিচ্ছে সুইজারল্যান্ডের গোটার্ড ট্যানেল। আল্পাস পর্বতমালার নিচে নির্মিত ৫৭ কিলোমিটারের এই ট্যানেলটি হবে বিশ্বে সুরঙ্গ পথে রেল যোগযোগ ব্যবস্থার অন্যতম নিদর্শন।

এটি নির্মানে বেশ বেগ পোহাতে হয়েছে সুইস কর্তৃপক্ষকে। ১৯৯০ সালে অনুমোদন পাওয়ার প্রায় ৭ বছর পর নির্মাণ কাজ শুরু করে কর্তৃপক্ষ। বড় বড় পাথর সরাতে গিয়ে প্রাণ গেছে বেশ কয়েকজন শ্রমিকের। অবশেষে ড্রীল মেশিনে ২০১০ সালে ১ দশমিক ৫ মিটারের চওড়া সর্বশেষ পাথরের দেওয়ালটি ভাঙ্গার মাধ্যমে সূচিত হয় নতুন অধ্যায়। বাকি সময় চলে যায় বিদ্যুৎসহ নানা সংযোগ দিতে।

রেলপথটি চালু হলে সুইজারল্যান্ডের জুরিখ থেকে ইতালির মিলান পর্যন্ত যোগাযোগ সহজ হবে। এই সুরঙ্গ পথ দিয়ে ঘন্টায় ২৫০কি.মি বেগে প্রতিদিন প্রায় ৩শ টি ট্রেন চলাচল করতে পারবে। এছাড়া, বিশ্বের দীর্ঘতম সুরঙ্গ পথের তকমা পেতে যাওয়া রেলপথটি হয়ে উঠতে পারে বিশ্বের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র।

এমনটি মনে করেন সুইস কর্তৃপক্ষ। সুইজারল্যান্ড প্রকৃতির অনেক সৌন্দর্য লুকিয়ে আছে। আল্পাস পর্বতমালা সহ নানা কারণেই পর্যটকদের কেন্দ্রবিন্দু এই দেশ। নুতন এই রেলপথ নির্মানের ফলে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা অরো এগিয়ে যাবে। বর্তমান ও নতুন প্রজন্ম প্রকৃতিকে খুব কাছে থেকে দেখবে। সবকিছু ঠিক থাকলে ১লা জুন খুলে দেয়া হবে বিশ্বের দীর্ঘতম সুরঙ্গ পথটি। 

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আমা

add-sm
Sonali Tissue
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩