সোমবার, ২০ আগস্ট, ২০১৮, ৫ ভাদ্র ১৪২৫

‘চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি চাই’

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৩ জুন ২০১৮, বুধবার ০৯:১৪ পিএম

‘চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি চাই’

ফাইল ফটো

ঢাকা: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, প্যারোলে মুক্তি দেয়া ছাড়া কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার আর কোনো পথ নেই। দ্রুত সুচিকিৎসার স্বার্থে রাজনৈতিক মতের ঊর্ধ্বে থেকে মানবিক বিবেচনায় তাকে প্যারোলে মুক্তি দিতে পারে সরকার।

তিনি বলেন, প্যারোলে মুক্তি পেলে খালেদা জিয়া তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে চিকিৎসা নিতে পারবেন। এতে করে সরকারেরও দায়দায়িত্ব থাকবে না।

বুধবার (১৩ জুন) বিকেলে রাজধানীর খিলগাঁওয়ে নিজের আইনি চেম্বারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার আইনজীবী হিসেবে খন্দকার মাহবুব হোসেন এই দাবি করেন এই জ্যেষ্ঠ আইনজীবী।

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘যেহেতু দুটি মামলায় আপিলের শুনানি ২৪ জুন নির্ধারিত রয়েছে। অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্টে অবকাশ ছুটি চলছে। ফলে আইনি প্রক্রিয়ায় তাকে আপাতত মুক্তি দেয়া সম্ভব নয়। এ অবস্থায় অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপারসনের সুচিকিৎসার জন্য প্যারোলে মুক্তি ছাড়া বিকল্প পথ খোলা নেই।’

তিনি বলেন, ‘চার মাসের বেশি সময় কারারুদ্ধ আছেন খালেদা জিয়া। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে। তিনি বয়স্ক নারী। নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন। ফলে তার জীবন নিয়ে শঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে। রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে মানবিক বিবেচনায় তার সুচিকিৎসা দেওয়া প্রয়োজন। অন্যদিকে আইনি প্রক্রিয়ায় তার কারামুক্ত হতে সময় প্রয়োজন। সুতরাং তার চিকিৎসার জন্য একটাই পথ খোলা রয়েছে, তা হচ্ছে প্যারোলে মুক্তি।’

খালেদা জিয়াকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসার প্রস্তাব দেওয়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘তিনি (খালেদা জিয়া) ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে ইচ্ছুক, তার ইচ্ছার ওপর গুরুত্ব দেওয়া উচিত। তার চিকিৎসার দায়িত্ব যেন সরকার না নেয়।’

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘এক এগারোর জরুরি অবস্থার শাসনামলে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও প্যারোলে মুক্তি পেয়েই স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিলেন। এমনকি তিনি প্যারোলে মুক্ত হয়েই বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন।

খালেদা জিয়াকেও সেই সুযোগ দেয়া উচিত। তখন দুই নেত্রীকে উন্নত পরিবেশে সাব জেলে রাখা হয়েছিল। কিন্তু বিএনপি চেয়ারপারসনকে রাখা হয়েছে পরিত্যক্ত নির্জন কারাগারে। যেখানে কোনো সুস্থ মানুষকে রাখা হলে তিনিও অসুস্থ হয়ে যাবেন।’

প্যারোলে মুক্তির জন্য বিএনপির পক্ষ থেকে আবেদন করা হবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, সরকার যদি সম্মত হয় তাহলে অবশ্যই আবেদন করা হবে। সরকারও আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ ছাড়া কারামুক্তি দিতে পারবে না।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue