শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

চীনা ভাষায় বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী&rsq

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৩ পিএম

চীনা ভাষায় বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী&rsq

নিজস্ব প্রতিবেদক
ইংরেজি এবং জাপানি ভাষার পর এবার চীনা ভাষায় অনূদিত হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটি।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে বইটির মোড়ক উন্মোচন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে বাংলাদেশে নিযুক্ত তৎকালীন চীনা রাষ্ট্রদূত লি জুন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ চীনা ভাষায় ভাষায় প্রকাশ করা হবে বলে জানান। সাক্ষাৎকালে লি জুন প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী চীনা ভাষায় অনুবাদ করে চীন সরকার তা প্রকাশ করবে।

বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটি ইংরেজি, জাপানি ভাষায় অনূদিত হয়েছে।

বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, ৬৭ থেকে ১৯৬৯ পর্যন্ত কারাগারে বন্দী থাকাকালে আত্মজীবনী লেখা শুরু করেন বঙ্গবন্ধু। কিন্তু তা শেষ করে যেতে পারেননি। চারটি খাতায় তার লেখা সেই পাণ্ডুলিপি ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ‘দি আনফিনিশড মেমোরিজ’ নামে ২০১২ সালে প্রকাশ করে দি ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড (ইউপিএল)।

বইটিতে আত্মজীবনী লেখার প্রেক্ষাপট, লেখকের বংশ পরিচয়, জন্ম, শৈশব, স্কুল ও কলেজের শিক্ষাজীবনের পাশাপাশি সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড, দুর্ভিক্ষ, বিহার ও কলকাতার দাঙ্গা, দেশভাগ, কলকাতাকেন্দ্রিক প্রাদেশিক মুসলিম ছাত্রলীগ ও মুসলিম লীগের রাজনীতির ইতিবৃত্ত রয়েছে। পাশাপাশি দেশ বিভাগের পরবর্তী সময়ে থেকে ১৯৫৪ সাল পর্যন্ত পূর্ব বাংলার রাজনীতি, কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক মুসলিম লীগ সরকারের অপশাসন, ভাষা আন্দোলন, ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা, যুক্তফ্রন্ট গঠন ও নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সরকার গঠন, আদমজীর দাঙ্গা, পাকিস্তান কেন্দ্রীয় সরকারের বৈষম্যমূলক শাসন ও প্রাসাদ ষড়যন্ত্রের বিস্তৃত বিবরণ এবং এসব বিষয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতার বর্ণনা রয়েছে। কারাগার ও বাইরের জীবন, বাবা-মা, স্ত্রী-সন্তান ও পরিবার-পরিজনের কথাও এতে বলেছেন বাংলাদেশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/মে

add-sm
Sonali Tissue
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩