শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

চোগলখোরী মারাত্বক কবীরা গুনাহ্

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৯ পিএম

চোগলখোরী মারাত্বক কবীরা গুনাহ্

হোসাইন আল খালদুন, সোনালীনিউজ

ঢাকা: একবার রাসূলে পাক (স.) ছাহাবীগণকে জিজ্ঞেস করলেন, সর্বাপেক্ষা অধম (বা জঘন্যতর) লোক কে? তারা বললেন, আল্লাহ ও আল্লাহর রসূলই তা ভাল জানেন। তিনি বলেন, সর্বাধিক জঘন্য লোক চোগলখোর (যে দু’ভাবে কথা বলে)। কেননা সে প্রত্যেকের সামনে তার পক্ষে বা মনোপুত কথা বলে থাকে। আর তার কাছে অন্যের দোষ প্রচার করে। কবর আযাবের তিনটি পর্যায় রয়েছে। তার এক-তৃতীয়াংশ হয় গীবতের কারণে। আর এক-তৃতীয়াংশ হয় প্রসাব থেকে সতর্ক না থাকার ফলে।

অপর তৃতীয়াংশ হয় চোগলখোরী করায়। ইমাম গাজ্জালী বলেন, চোগলখোর যাদুকরের এবং শয়তানের অপকার থেকে মারাত্বক। কেননা যাদুকর যা এক সপ্তাহে করতে পারে চোগলখোর তা এক পলকেই করে ফেলে। শয়তান ধোকা ও প্রতারণার দ্বারা যা করে চোগলখোর তা সামনা-সামনি ও প্রত্যক্ষভাবে করে।

আবু আবদুল্লাহ কুরাইশী (রহ.) বলেন, একটি লোক জনৈক আলিমের নিকট সাতটি বিষয়ে জানার জন্য দীর্ঘ পথ হেঁটে এসে তাঁর কাছে জিজ্ঞেস করলেন:
(১) কোন বস্তু আকাশ থেকেও ভারী? (২) যমিন থেকেও প্রশস্ত? (৩) পাথর থেকেও কঠিন? (৪) অগ্নি অপেক্ষাও দহনশীল (৫) জামহারীর পাথর থেকেও বেশী ঠা-া? (৬) সাগর থেকেও গভীরতর? (৭) ইয়াতীম হতেও দুর্বল আবু আবদুল্লাহ কুরাইশী (রহ.) জবাব দিলেন: (১) পুতপবিত্র চরিত্রবান লোককে কলঙ্ক লেপন করা আসমান থেকেও ভারী।  (২) সত্য যমিন থেকেও বেশি প্রশস্ত। (৩) কাফেরের অন্তর পাথর থেকেও কঠিন। (৪) লোভ-লালসা আগুন থেকেও অধিক দদ্ধকারী। (৫) কোন নিকট আত্বীয়দের কাছে কোন প্রয়োজন নিয়ে যাওয়া জামহারীর পাথর থেকেও হিম-শীতল। (৬) স্বল্পে তুষ্ট লোকের হৃদয় সাগর থেকেও গভীরতর। (৭) চোগলখোরী প্রকাশ পেয়ে যাওয়া চোগলখোরের জন্য ইয়াতীমদের চেয়েও দুর্বলতা ডেকে আনে।

হযরত হাসান বছরী (রহ.) বলেন, যে লোক তোমার কাছে অন্যের দোষ বলবে, তুমি বুঝে নেবে যে, সে অবশ্যই তোমার দোষও অন্যের কাছে বলবে। এজন্যই অন্যের দোষ বর্ণনাকারীকে কখনো বিশ্বাস করো না। একব্যক্তি ওমর বিন আবদুল আজিজের সামনে কারো গীবত করলে তিনি বললেন, যদি তুমি মিথ্যাবাদী হও তাহলে ‘ইন জাআকুম ফাসেকুম মিন নাবাইন ফা তাবাইয়্যানু’ (যদি কোন ফাসেক তোমাদের কাছে কোন কথা বলে তাহলে তার সত্যতা যাচাই করে নাও) আয়াতটি তোমার ওপর প্রযোজ্য। আর যদি সত্যবাদী হও তাহলে ‘হাম্মাযিন মাশশায়িম বি নামীম’’ (বিদ্রূপকারী মারাত্বক চোগলখোর অর্থাৎ কোন অবস্থায়ই তোমার কথা গ্রহণযোগ্য নয়) আয়াতটি তোমার উপর প্রযোজ্য। (সংকলিত)

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩