বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

‘ছাত্রদলের নেতা মিলনের শরীরে আঘাতের চিহ্ন নেই’

বিশেষ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৩ মার্চ ২০১৮, মঙ্গলবার ০৩:২৬ পিএম

‘ছাত্রদলের নেতা মিলনের শরীরে আঘাতের চিহ্ন নেই’

ঢাকা: কারাগারে অসুস্থ হয়ে রাজধানীর তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন মিলন মারা যান। তার মৃত্যুর পর ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে বলে জানালের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ডা. সোহেল মাহমুদ।  

চিকিৎসক জানিয়েছেন, জাকির হোসেন মিলনের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার (১৩ মার্চ ) দুপুর ১২টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রোববার (১১ মার্চ) সকালে কেরানিগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয় জাকিরকে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্বজনদের অভিযোগ, রিমান্ডে থাকাকালীন সময়ে পুলিশের নির্যাতনেই মৃত্যু হয়েছে জাকিরের।

গত ৬ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে অংশ নেন তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন মিলন।

কর্মসূচি শেষে ফেরার পথে প্রেসক্লাব এলাকা থেকে শাহবাগ থানা পুলিশ গ্রেফতার করে জাকিরকে। পরে পুলিশের কাজে বাধা দেয়া এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির মামলায় তিন দিনের রিমান্ড নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গত শনিবার কারাগারে পাঠানো হয় জাকিরকে।

সোমবার (১২ মার্চ) সকালে কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয় ছাত্রদল নেতা জাকির হোসেন মিলনকে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে এ ঘটনায় নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেন, পুলিশি নির্যাতনে গুরুতর আহত ছাত্রদল নেতা জাকির চিকিৎসার অভাবে মারা গেছেন। মৃত্যুর সঠিক কারণ উদঘাটনের দাবি জানিয়েছেন অন্যান্য বিএনপি নেতারাও।

সোনালীনিউজ/জেডআরসি/এআই