সোমবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৮, ৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

ডেকে নিয়ে ধর্ষণ, ২০০ টাকা ধরিয়ে দিয়ে হত্যার হুমকি

নাটোর প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ জুলাই ২০১৮, শনিবার ১২:০৯ পিএম

ডেকে নিয়ে ধর্ষণ, ২০০ টাকা ধরিয়ে দিয়ে হত্যার হুমকি

প্রতিকি ছবি

নাটোর: জেলার বড়াইগ্রামে স্কুল থেকে ডেকে নিয়ে পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১২) ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় গ্রাম্য মাতব্বররা ১ লাখ ৬০ হাজার টাকায় রফা করেছে।

এই টাকার ৪০ হাজার টাকা গ্রাম প্রধানরা নিজেরাই ভাগ-বাটোয়ারা করে নেয়ার অভিযোগও উঠেছে। এছাড়া বাকী ১ লাখ ২০ হাজার টাকা নগদ দিতে অপারগতা স্বীকার করায় অভিযুক্ত ধর্ষণকারী সমমূল্যে জমি প্রদানের অঙ্গীকার প্রদান করেছে।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে নাটোরের বড়াইগ্রামের গোপালপুর ইউনিয়নের গড়মাটি গ্রামে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মাহফুজুর রহমান মাহফুজ সঙ্গীয় গ্রাম প্রধানদের সাথে নিয়ে এই বিচার কার্য সম্পন্ন করেন। এর আগে একই দিন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই গ্রামের বাহাদুর প্রামানিক (৭০) নামের এক বৃদ্ধ গড়মাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওই ছাত্রীকে কৌশলে তার ডেকোরেটরের দোকানে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। বাহাদুর ওই গ্রামের মৃত এবাদ প্রামানিকের ছেলে।

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী অভিযোগ করে বলেন, দাদা-নাতি সম্পর্কের সূত্র ধরে বাহাদুর ওই বিদ্যালয়ের একই ক্লাসের একটি মেয়েকে দিয়ে কিছু কথা আছে বলে তাকে তার ভাই ভাই ডেকোরেটর দোকানে ডেকে নেয়। পরে সকলের অগোচরে দোকানের দরজা বন্ধ করে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। কাউকে কিছু বললে প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলে জানিয়ে দিয়ে তাকে দুইশত টাকা হাতে ধরিয়ে দেন।

কিন্তু সে সঙ্গে সঙ্গে বাজারে এসে তার চাচাকে বলে দেয় এবং তৎক্ষনাত বাজারের লোকজন ঘটনাস্থল থেকে বৃদ্ধকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন।
এলাকাবাসী জানান, ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর মা তাকে ছোট রেখেই মারা গেছেন। বাবা ঢাকা শহরে থাকেন। ছোট বোনকে নিয়ে সে তার দাদীর সাথে বসবাস করছে।

স্থানীয়রা অনেকেই জানান, বাহাদুর এর আগেও এমন বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটিয়েছে। সে প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ কিছু বলতে পারেন না। দুই স্ত্রীসহ বাহাদুর ওই গ্রামে বসবাস করে আসছেন।

আওয়ামী লীগ নেতা মাহফুজ জানান, তার কাছে দুইপক্ষই বিচার নিয়ে আসায় আমি কয়েকজন গ্রাম প্রধানদের নিয়ে বিষয়টি মিমাংসা করে দিয়েছি। এক্ষেত্রে ৪০ হাজার টাকা নিজেরাই ভাগ বাটোয়ারা করে নেয়ার অভিযোগটি তিনি অস্বীকার করে জানান- সব টাকাই ধর্ষণের শিকার মেয়েটিকে দেয়া হবে।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীলিপ কুমার দাস জানান, গ্রাম্য শালিসে কখনও ধর্ষণের ঘটনার মিমাংসা হতে পারে না। এ ব্যাপারে থানায় মামলা রুজু করা হবে। ধর্ষক ও সহযোগীদের আইনে আওতায় আনা হবে।


সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue