সোমবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৮, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫

তামিম-মুমিনুলদের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ

ক্রীড়া প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, শুক্রবার ০৬:২৮ পিএম

তামিম-মুমিনুলদের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ

রোশান সিলভা

ঢাকা:  চতুর্থ ইনিংসে বাংলাদেশের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। বোলারদের দাপটে ঢাকা টেস্টে দুই দিনে ২৮ উইকেট পড়েছে। নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে দিন শেষে শ্রীলঙ্কা তুলেছে ৮ উইকেটে ২০০ রান। তাতেই তারা ৩১২ রানের লিড পেয়েছে। হাতে ২ উইকেট নিয়ে তৃতীয় দিন শ্রীলঙ্কা বোর্ডে কত রান যোগ করে সেটাই দেখার বিষয়। স্বীকতৃ ব্যাটসম্যান বলতে রোশান সিলভাই আছেন। তিনি ৫৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। রোশানের সঙ্গী টেলএন্ডার সুরঙ্গা লাকমল আছেন ৭ রান নিয়ে।

এরই মধ্যে শ্রীলঙ্কা যে লিড পেয়েছে সে রানই টপকে চতুর্থ ইনিংসে জেতা কঠিন ব্যাপার। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মিরপুরের ২২ গজ ব্যাটসম্যানদের জন্য দূর্বোধ্য ঠেকবে। সেক্ষেত্রে জয়ের পাল্লা শ্রীলঙ্কার দিকেই হেলে আছে। বাংলাদেশ এই ম্যাচ জিততে পারে দু-একজন অসাধারণ ইনিংস খেললেই। এই টেস্ট ড্র হওয়ার কোনো সুযোগই নেই।

শ্রীলঙ্কাকে দ্বিতীয় ইনিংসে টানছেন রোশান সিলভা। এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান এখনও ৫৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। ৯৪ বলে নয় চারের সাহায্যে তিনি এই রান করেন। উল্লেখযোগ্য রান করেছেন করুনারত্নে (৩২), দিনেশ চান্ডিমাল ৩০) ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা (২৮)। ৩৫ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। ২৯ ও ৭২ রানের বিনিময়ে যথাক্রমে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন মিরাজ ও তাইজুল। প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট পাওয়া রাজ্জাক ১টি উইকেট নিয়েছেন ৬০ রান দিয়ে।

শেরেবাংলার ২২ গজে বাংলাদেশ এভাবে খাবি খাবে সেটি বোধহয় ভাবেননি মাহমুদউল্লাহ। আগের দিনই বাংলাদেশের সর্বনাশটা হয়েছিল। ৫৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যাওয়া দলটির ব্যাটসম্যানদের আরো ধৈর্য্যর পরিচয় দেয়া উচিৎ ছিল। কিন্তু এক মেহেদি হাসান মিরাজ ছাড়া কেউ আর সেটা দেখাতে পারলেন না।

দ্বিতীয় দিনে সাত সকালে লিটন দাসকে (২৫) দলীয় ৭৩ রানে হারানোর পর মিরাজ-মাহমুদউল্লাহ মিলে বাংলাদেশকে উদ্ধারের চেষ্টা করেন। তারা ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু ১০৭ রানে মাহমুদউল্লাহ আকিলা ধনঞ্জয়ার বলে বোল্ড হতেই সবকিছু  শেষ হয়ে গেল। সাব্বির রহমান ৩ বল খেলে রানের খাতাই খুলতে পারলেন না। শূন্য রানে ওই ধনঞ্জয়ার বলেই দিনেশ চান্ডিমালের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন মাথা নিচু করে।

এরপর বোলাররা আর কতদূরইবা নিয়ে যেতে পারেন। আব্দুর রাজ্জাক ফিরেছেন ধনঞ্জয়ার বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে। তাইজুল হলেন রান আউট। আর দিলরুয়ানের বলে এলবিডব্লুয়ের ফাঁদে কাটা পড়লেন মোস্তাফিজুর। বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস শেষ ১১০ রানে। এক প্রান্তে নিঃসঙ্গ শেরপা হয়ে সতীর্থদের যাওয়া আসার মিছিল দেখলেন মিরাজ। ৭৮ বলে ৩৮ রানে অপরাজিত থাকা এই অলরাউন্ডার বলতেই পারেন,‘ আমি একা আর কি করব!’

এদিন বাংলাদেশের সর্বনাশটা করেছেন আসলে ধনঞ্জয়া টপাটপ ৩ উইকেট নিয়ে। সেটা এতটাই যে লাঞ্চের আগেই আবার শ্রীলঙ্কাকে ব্যাট করতে নামতে হলো।

আগের দিন লাকমল-পেরেরাদের বলে টপাটপ উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। ৪ রানে তামিম ইকবাল (৪) মুমিনুল হক (০) ফিরে গিয়ে বিপর্যয়ের শুরুটা করেন। এই বিপদ আর সামাল দেয়া যায়নি। বরং ইমরুল কায়েস (১৯) ও মুশফিকুর রহীম (১) আউট হয়ে সেটি আরো বাড়িয়েছেন।

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue