শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

দিল্লিতে কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর হামলা : বিব্রত ভারত সরকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

দিল্লিতে কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর হামলা : বিব্রত ভারত সরকার

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যে আফ্রিকান নাগরিকদের ওপর আবার নৃশংস হামলার ঘটনাতে চরম অস্বস্তিতে পড়েছে ভারত সরকার ।

দক্ষিণ দিল্লির একটি এলাকায় আফ্রিকানদের ওপর হামলার এই সবশেষ ঘটনাতে আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের ছ’জন নাগরিককে ক্রিকেট ব্যাট ও লাঠিসোটা দিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

পুলিশ এই ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে, উদ্বিগ্ন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ নিজে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে হামলার তদন্ত নিয়ে কথা বলছেন।

গত সপ্তাহেই দিল্লিতে একজন কঙ্গোলিজ যুবককে পিটিয়ে মারার পর আফ্রিকার দূতাবাসগুলো যৌথভাবে ভারতের কাছে প্রতিবাদ জানিয়েছিল, নতুন এই হামলার পর ভারত ও আফ্রিকার কূটনৈতিক সম্পর্কে আরও অবনতির লক্ষণ দেখা যাচ্ছে।

সবশেষ এই হামলার ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিল্লির ছত্তরপুর এলাকায় – যাতে মোট তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগকারীদের মধ্যে দু’জন মহিলা – একজন উগান্ডা ও অন্যজন দক্ষিণ আফ্রিকার, এছাড়া নাইজেরিয়ার একজন যুবকও আছেন।

অভিযোগকারী ওই নাইজেরিয়ান বলেছেন, তিনি একটি স্থানীয় চার্চের যাজক – আর অটোরিক্সায় চেপে সেই চার্চে যাওয়ার পথেই তাকে ও তার বন্ধুদের টেনে নামিয়ে ক্রিকেট ব্যাট ও লাঠি দিয়ে পেটানো হয়।

পুলিশ অবশ্য এই হামলাকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা বলেই বর্ণনা করেছে – এবং দাবি করেছে বেশি রাতে জোরে গান বাজানো বা মদ খেয়ে হুল্লোড় করাকে কেন্দ্র করেই স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে আফ্রিকানদের সংঘর্ষ হয়েছিল।

অর্থাৎ পুলিশ বা প্রশাসন এটাকে বর্ণবাদী হামলা বলে মানতে রাজি নয়, এমন কী ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ভি কে সিং পর্যন্ত বলেছেন একটা ‘তুচ্ছ সংঘর্ষে’র ঘটনাকে সংবাদমাধ্যম ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে বড় করে দেখাচ্ছে।

ইতোমধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ এই হামলার ঘটনা নিয়ে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং (দিল্লি পুলিশ যার অধীনে) এবং দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর নাজিব জংয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন।

এর পরই আজ ওই হামলার ঘটনাতে পুলিশ মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে। আরও বেশ কয়েকজন অভিযুক্তকে খোঁজা হচ্ছে।

গত সপ্তাহে দিল্লিতে কঙ্গোর এক যুবককে পিটিয়ে মারার পর দিল্লিতে আফ্রিকান দূতাবাসগুলো এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছিল এভাবে তাদের নাগরিকদের ওপর হামলা চলতে থাকলে আফ্রিকা থেকে ভারতে ছাত্রদের পড়তে আসাই বন্ধ হয়ে যাবে।

তারা এ সপ্তাহে ভারতের উদ্যোগে আয়োজিত ‘আফ্রিকা দিবসে’র উৎসব বর্জনেরও ডাক দিয়েছিলেন – যদিও শেষ পর্যন্ত ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে তাদের অনেকেই শেষ পর্যন্ত দিল্লির ওই অনুষ্ঠানে এসেছিলেন।

ছত্তরপুরে হামলার সবশেষ ঘটনার পর আফ্রিকান রাষ্ট্রদূতরা এখনও কোনও নতুন বিবৃতি দেননি ঠিকই, তবে তারা পরিস্থিতি নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করছেন বলে জানা গেছে।

তবে ভারতে অবস্থানরত আফ্রিকান নাগরিকরা তাদের ওপর এই সব হামলার প্রতিবাদ জানাতে আগামী মঙ্গলবার দিল্লির যন্তর মন্তর প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ সমাবেশ করবেন বলে ঘোষণা করেছেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমএইচএম

 

add-sm
Sonali Tissue
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩