রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

দুর্দান্ত জয়ে শুরু বাংলাদেশের

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৩৪ পিএম

দুর্দান্ত জয়ে শুরু বাংলাদেশের

সোনালীনিউজ ডেস্ক
বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপে স্বাগতিকদের শুরুটা হয়েছে চমৎকার। আজ শুক্রবার যশোরের শামসুল হুদা স্টেডিয়ামে আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে (গ্রুপ 'এ') তারা ৪-২ গোলে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। স্বাগতিকদের পক্ষে সাখাওয়াত হোসেন রনি ২টি, নাবিব নেওয়াজ জীবন ও ইয়াসিন খান একটি করে গোল করেছেন।
খেলার তিন মিনিটেই একটি সুযোগ ছিল বাংলাদেশের সামনে। কিন্তু জীবন বলটাকে টোকা দিয়ে জালে পাঠাতে পারেননি। তবে ১৭ থেকে ২২ মিনিটের মধ্যে ম্যাচে ৩ গোল হয়। দারুণ জমে ওঠে খেলা।
লিড নিয়েছিল স্বাগতিকরা। ডান প্রান্ত থেকে জাহিদ হোসেন বল পাঠান শ্রীলঙ্কার গোলমুখে। সেখানে ছিলেন রনি। তিনি ঠাণ্ডা মাথায় জালে বল জড়িয়ে দলকে এগিয়ে দেন।
কিন্তু ২০ মিনিটে গোল করে ম্যাচে ফিরে আসে লঙ্কানরা। ভুলটা বাংলাদেশের। নাসির উদ্দিন চৌধুরী ডি বক্সের মধ্যে ফেলে দেন ডি সিলভাকে। পেনাল্টি থেকে গোল করে এডিসন ফিগুরাডো গোল করে খেলায় সমতা আনেন।
বাংলাদেশ পিছিয়ে থাকতে রাজি না। ২২ মিনিটে কর্নার পায় তারা। অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম কর্নার থেকে বক্সের মধ্যে উড়িয়ে দেন বলকে। নিচু হয়ে হেড করে বলকে জাল চিনিয়েছেন ইয়াসিন। ২-১ এ লিড নেয় বাংলাদেশ।  
বিরতির ২ মিনিট আগে ফ্রি-কিক থেকে গোল করে ব্যবধান আরো বাড়িয়ে নেন জীবন। বিপজ্জনক এলাকায় ফ্রি-কিক পেয়ে শট নেন জাহিদ। সেই বলে পা লাগিয়ে গোল করেন জীবন।
৩-১ গোলে এগিয়ে থেকে বাংলাদেশ যায় বিরতিতে। কিন্তু ফিরে আসার পর শ্রীলঙ্কার আক্রমণের মুখে পড়ে তারা। ৫২ মিনিটে ব্যবধান কমিয়ে নেয় শ্রীলঙ্কা। জামাল ভূঁইয়ার ভুলে আলগা বল পেয়ে যান চতুরঙ্গা সঞ্জিবা। সামনের দুই ডিফেন্ডার তাকে ঠেকাতে পারেননি। গোলকিপার শহিদুল আলমকে হার মানিয়ে ব্যবধান ৩-২ করেন চতুরঙ্গা।
তিন মিনিট পর রনি বল পাঠিয়েছিলেন লঙ্কান গোলমুখে। জীবন তৈরি থাকলে গোলের আশা করতে পারতো বাংলাদেশ। লঙ্কানদের আক্রমণ সামলে আক্রমণে গেছে বাংলাদেশ। রনি ডি বক্সে সময় একটু বেশি নিয়ে ফেলায় গোলের সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়।
৮৬ মিনিটে বাংলাদেশের গোলকিপার শহিদুল গোল কিক নেন। বল গিয়ে পড়ে শ্রীলঙ্কার বড় বক্সের বাইরে। লঙ্কান এক ডিফেন্ডার ব্যাক হেডে বল পেছনে পাঠান। গোলকিপার ততক্ষণে সামনে এগিয়ে এসেছেন। জালের দিকে এগিয়ে যাওয়া বলকে টোকা দিয়ে রনি গোল নিশ্চিত করেন।

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩