রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

দুর্নীতি জিরো টলারেন্সে আনা হবে

খুলনা প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

দুর্নীতি জিরো টলারেন্সে আনা হবে

দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, ‘তিনটি সেক্টরকে দুর্নীতিমুক্ত করার জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও যারা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অর্থ লুট করেছেন, জনগণের অর্থ চুরি করেছেন তাদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান চলবে। এ তিনটি সেক্টরের দুর্নীতি জিরো টলারেন্সে আনা হবে। প্রতিষ্ঠানগুলোকে দুর্নীতিমুক্ত করতে, জনগণের আস্থা ফিরিয়ে আনতে আমাদের নতুন উদ্যমে কাজ শুরু হয়েছে। জনগণ সমাজের চালিকাশক্তি। জনগণের সহযোগিতা পেলে দুদক সফল হবে।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে খুলনা ও বরিশাল বিভাগের নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ মহানগর, জেলা ও উপজেলা দুর্নীতি দমন প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, ‘জনগণের ব্যাংকের টাকা জামানত ছাড়া হাজার কোটি টাকা নিয়ে গেছে, এটা কেমন কথা। আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এই দুর্নীতিগুলো ধরার চেষ্টা চলছে। আর এসব দুর্নীতি ধরতে সিস্টেম তৈরি করতে হবে। এ জন্য কাজ চলছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নিয়ে অভিযোগকারীকে জানানো হবে। সমাজের দুর্নীতি একদিনেই শেষ করা সম্ভব নয়। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। মানুষের চাহিদা অনেক বেশি। চাহিদার সঙ্গে সামঞ্জস্য করতে না পারলে সমাজ ধ্বংস হয়ে যাবে।’

ক্ষোভের সঙ্গে তিনি বলেন, ‘সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতির প্রকোপ। আগামী দিনে দুর্নীতিবাজরা ছাড় পেয়ে যাবে এমনটা হবে না। জনগণ, সরকার ও সিভিল সোসাইটিসহ সকলকে নিয়ে দুর্নীতি প্রতিরোধ করা হবে। জনগণের সহযোগিতা পেলে কোনো লুটেরা আইনের আওতার বাইরে যাবে না।’  

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশনের মহাপরিচালক ড. মোহাম্মদ শামসুল আলম, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুস সামাদ, খুবি উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. ফায়েক উজ জামান, কুয়েট উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর। 

সহকারী পরিচালক এসএম শামীম ইকবালের পরিচালনায় স্বাগত বক্তৃতা দেন দুদকের বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক আবু মোহাম্মদ আরিফ সিদ্দিকী।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমএইউ

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩