শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪

দ. চীন সাগরের দ্বীপে চলাচল করবে বেইজিংয়ের বিমান

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৩৪ পিএম

দ. চীন সাগরের দ্বীপে চলাচল করবে বেইজিংয়ের বিমান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

দক্ষিণ চীন সাগরের বিতর্কিত প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জে বেসামরিক যাত্রীবাহী বিমান চলাচল শুরু করবে বলে ঘোষণা করেছে বেইজিং। এ দ্বীপপুঞ্জের উডি আইল্যান্ডের সানশা নগরী থেকে এ চীনের মূল ভূখন্ডে বিমান চলাচল করবে। এ অঞ্চলে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য চীনা ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন নিয়ে আমেরিকা এবং তাইওয়ানের সঙ্গে প্রচ- টানাপড়েনের মধ্যে এ ঘোষণা দিল বেইজিং।

বিমান চলাচল সংক্রান্ত চীনের এ ঘোষণার বিরুদ্ধে নিন্দা জানিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা। তারা দাবি করেছেন, বেসামরিক বিমান চলাচল শুরু হলে এ দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে চলমান পরিস্থিতি আরো জটিল হবে। চীন ছাড়াও আরো কয়েকটি দেশ এ দ্বীপপুঞ্জের ওপর নিজেদের সার্বভৌমত্ব দাবি করছে।

প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জের ওপর চীনের সার্বভৌমত্ব দাবি পুরো অঞ্চলের অর্থনৈতিক ও পরর্রানীতির ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলেছে। দ্বীপপুঞ্জের কাছাকাছি সাগরতলে ব্যাপক পরিমাণে তেল ও গ্যাসের মজুদ আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এছাড়া, এ অঞ্চলের সমুদ্রপথে বছরে প্রায় পাঁচ ট্রিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য হয়।
দক্ষিণ চীন সাগরের বিতর্কিত এলাকাগুলোকে নিজ দেশের অন্তর্ভুক্ত বলে দাবি করছে চীন। পাশাপাশি একই দাবি তুলেছে ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, ব্রুনাই এবং তাইওয়ান। বিরোধপূর্ণ এসব এলাকা হলো স্পার্টলি, প্যারাসেল, প্রাসাটাস এবং স্কেয়ারবোরো দ্বীপপুঞ্জ।

আমেরিকা এরইমধ্যে আঞ্চলিক এ বিরোধে জড়িয়ে পড়েছে। চীনের বিরুদ্ধে ফিলিপাইন, জাপান ও তাইওয়ানের মতো মিত্রদেশগুলোর পক্ষ নিয়েছে আমেরিকা। এছাড়া, কয়েক দফা মার্কিন গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্রবাহী ডেস্ট্রয়ার ওই এলাকা দিয়ে চলাচল করেছে।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Sonali Bazar

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue