সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

নতুন ইন্টারনেট নীতিমালা নিয়ে বিভ্রান্তি চীনে

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৮ পিএম

নতুন ইন্টারনেট নীতিমালা নিয়ে বিভ্রান্তি চীনে

সোনালীনিউজ ডেস্ক

সম্প্রতি চীনে ইন্টারনেট ব্যবহারের উপর নতুন নীতিমালা প্রস্তাব করেছে দেশটির প্রযুক্তি নীতিনির্ধারক প্রতিষ্ঠান। নতুন নীতি অনুসারে দেশটির নিজস্ব ওয়েবসাইট ছাড়া বাইরের দেশের কোন সাইট ব্যবহার করা যাবে না, এমন প্রস্তাব আনা হয়েছে বলে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়।

এ বিষয়ে চীনের প্রযুক্তি নীতিনির্ধারক প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, এখানে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে। অনেক মানুষের ধারণা সাইবারস্পেইসে নিয়ন্ত্রণ আরও জোরদার করতে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কিন্তু ব্যাপারটি সেরকম কিছুই নয়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ওই খসড়া নীতি প্রস্তাবে চীনের অন্যান্য আইনের মতই ওয়েবসাইটে বড় পরিসরে সরকারি হস্তক্ষেপ থাকবে। আর বিশেষ ক্ষেত্রে যেসব ওয়েবসাইট চীনে নিবন্ধন করা নয় সেগুলো বন্ধ করা হতে পারে এমনটাই বলা হয়েছে।

চীনের শিল্প ও প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ডোমেইন নিবন্ধনের ক্ষেত্রে নতুন প্রস্তাব আনা হয়েছে। চীনের নিজস্ব ওয়েবসাইটগুলো অবশ্যই নিজেদের দেশের ডোমেইনে নিবন্ধন করতে হবে। সেটা না হলে ওই ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেওয়া অথবা ৪ হাজার ৬০০ মার্কিন ডলার জরিমানা করা হবে বলে জানিয়েছে, রয়টার্স।

এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বলা হয়, “ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো চীনের নিবন্ধিত ডোমেইন ছাড়া অন্য কোনো ডোমেইনে সেবা দেবে না।”
ডোমেইন নিবন্ধনের নতুন এই নীতিমালা নিয়ে সমস্যায় পড়েছে দেশটির শীর্ষস্থানীয় কিছু ওয়েবসাইট। আলিবাবা, বাইডু, টিমল এর মত জনপ্রিয় ওয়েবসাইটগুলো বাইরের দেশে নিবন্ধন করা।

বাইডুর এক মুখপাত্র বলেন, “আমরা নতুন এই নীতিমালা গভীরভাবে পরীক্ষা করে দেখছি।” এর আগে ফায়ারওয়ালের মাধ্যমে দেশটিতে গুগল, ফেইসবুক এবং টুইটার ব্যবহার বন্ধ করে দিয়েছে চীন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

add-sm
Sonali Tissue
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩