রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

নিয়মিত যোগব্যায়াম করার ৮টি দারুণ স্বাস্থ্য উপকারিত

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৩ পিএম

নিয়মিত যোগব্যায়াম করার ৮টি দারুণ স্বাস্থ্য উপকারিত

সোনালীনিউজ ডেস্ক
ওজন নিয়ন্ত্রণে আনা, শক্তিশালী এবং সুগঠিত দেহ, উজ্জ্বল ত্বক, প্রশান্তির মানসিকতা, সুস্বাস্থ্যের অধিকারী এমন কিছু নেই যে আপনি যোগ ব্যায়াম করে অর্জন করতে পারবেন না।

যোগ ব্যায়াম একটি স্বাস্থ্যকর প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কোনো ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই এই ধরনের সুবিধাগুলো অর্জন করা সম্ভব। আসুন জেনে নিন এমনি কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা যা একমাত্র যোগব্যায়াম করেই আপনি অর্জন করতে পারেন।

১. শারীরিক ফিটনেস :
যোগব্যায়াম করলে আপনি শারীরিকভাবে সুস্বাস্থের অধিকারী হতে পারবেন। যোগব্যায়াম পেশী শক্ত করে। শরীর যদি ফিট থাকে তাহলে আপনি মানসিকভাবেও সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হতে পারবেন। তাই একটি স্বাস্থ্যকর শরীরের জন্য আপনি প্রতিদিন সকালে এই যোগব্যায়ামের আশ্রয় নিতে পারেন।

২. ওজন কমানো :
ওজন কমানো নিয়ে অনেকেই অনেক বেশি চিন্তিত থাকে। এই যোগব্যায়ামে আপনার শরীরের অতিরিক্ত ওজন নিয়ন্ত্রণে আসতে পারে। এর জন্য সান স্যালুটেশনস এবং কাপাল ভাতি প্রাণায়াম ২ টি সঠিক যোগব্যায়াম যা আপনার ওজন কমাতে সহায়ক। এছাড়া অন্যান্য ইয়োগা করার পাশাপাশি খাবারে নিয়ন্ত্রণ আনলেও আপনি আপনার ওজন কমাতে পারবেন।

৩. মানসিক চাপ থেকে মুক্তি :
দিনের শুরুতে কয়েক মিনিটের যোগব্যায়াম আপনাকে দৈহিকভাবে সারাদিন সুস্থ রাখে পাশাপাশি বিভিন্ন মানসিক চাপ থেকে মুক্তি দিতে পারে। এর জন্য প্রয়োজন সঠিক ইয়োগা প্রাণায়াম ও মেডিটেশন পদ্ধতি অনুসরণ করা।

৪. আত্মিক শান্তি :
যোগব্যায়াম করলে আপনি যখন দৈহিকভাবে এবং মানসিকভাবে সুস্থ থাকবেন, আপনার মনে যখন কোনো ধরনের বাজে চিন্তা আশ্রয় নিতে পারবে না তখন আপনি আত্মিকভাবে শান্তি পাবেন। মনে প্রফুল্লতা বিরাজ করবে।

৫. মানবিকতার উন্নয়ন :
যোগব্যায়াম করলে চিন্তার বিকাশ ঘটে। আপনি তখন সমাজের ভালোমন্দ ভাবার অবকাশ পাবেন, আপনি মানব ধর্মকে বুঝতে পারবেন। এর ফলে আপনার ভেতরের মানবিকতার উন্নয়ন ঘটবে।

৬. সচেতনভাবে বসবাস :
আজকাল সচেতন নাগরিকের বড় অভাব। যোগব্যায়ামের ফলে আপনার অতীত থেকে ভবিষ্যত ভাবার সুযোগ আসবে। ফলে আপনি অতীতে ঘটে যাওয়া কোনো ভুলের পুনরোৎপাদন করবেন না। ভবিষ্যতের পরিকল্পনাগুলো সচেতনভাবে করতে পারবেন। ফলে আপনি সমাজে সচেতনভাবে বসবাসের সুযোগ পাবেন।

৭. সুসম্পর্ক তৈরি :
একটা মানুষের সাথে আরেকটা মানুষের সম্পর্ক জীবনে জটিলতায় দিনদিন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ফলে সম্পর্কগুলোতে বিচ্ছেদ ঘটছে প্রতিনিয়তই। যোগব্যায়াম করলে আপনি মানসিকভাবে সুস্থ এবং ঠান্ডা মস্তিষ্ক ধারণ করবেন। ফলে আপনার সাখে অন্যান্যদের সম্পর্কগুলো বেশ সহজ হয়ে যাবে।

৮. শক্তি বৃদ্ধি :
দিনের শেষভাগে আমাদের সবারই শরীরের অ্যানার্জী শেষ হয়ে যায় সারাদিনের কঠোর পরিশ্রমে। এই শারীরিক অ্যানার্জী ফিরিয়ে দিতে পারে একমাত্র সঠিক পদ্ধতির কিছু যোগব্যায়াম। এর জন্য ১০ মিনিটের অনলাইনে নির্দেশিত কিছু মেডিটেশন আপনি প্রতিদিন করে নিতে পারেন।


সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩