শনিবার, ২১ জুলাই, ২০১৮, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫

পুলিশের ঘুষ গ্রহণের ছবি তোলায় যে হাল হলো রাবি শিক্ষার্থীর

সাঈদ সজল, রাবি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ জুলাই ২০১৮, শনিবার ০৯:৩৯ এএম

পুলিশের ঘুষ গ্রহণের ছবি তোলায় যে হাল হলো রাবি শিক্ষার্থীর

রাবি: রাজশাহীর বাঘা থানার এক উপ-পুলিশ পরিদর্শকের ঘুষ গ্রহণের ছবি মোবাইল ফোনে ধারণ করায় রাজশাহী বিশ্বদ্যিালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থীকে থানায় এনে পিটিয়ে জখম করেছে পুলিশ। শুক্রবার বিকেলে রাজশাহীর বাঘায় এ ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে ওই শিক্ষার্থীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগে সূত্রে জানা যায়, বাঘা উপজেলার কলিগ্রাম এলাকার শ্রী পঞ্চনন্দন সরকারের ছেলে অমর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী। তার সাথে উপজেলার চক আমোদপুর গ্রামের শিমুলের আমের বাগান নিয়ে দ্বন্দ্ব রয়েছে।

এ ঘটনায় অমর আম রক্ষার জন্য বাঘা থানায় একটি লিখিত আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার সকালে বাঘা থানার উপ- পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) মুনসুর রহমান অমরের আমের বাগানে যায়।

ওই সময় এসআই অমরের কথায় কর্ণপাত না করে প্রতিপক্ষ শিমুলের কাছে উৎকোচ নিয়ে আম পাড়তে সহযোগীতা করে। আর এই ঘুষ গ্রহণের ছবি মোবাইল ফোনে ধারণ করে অমর।

এদিকে ঘুষ গ্রহণের ছবি তুলতে দেখে অমরের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে থানায় নিয়ে আসে এ পুলিশ কর্মকর্তা। এরপর স্বয়ং ওসির রুমে তার মোবাইল ফোনের ছবি মুছে ফেলতে বলা হয়। এতে অপরাগত প্রকাশ করে ওমর। তখন ওসি নিজে অমরের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে গাল মন্দ করে। এ সময় অমরকে ঘাড় ধরে চড়থাপ্পড় ও কিলঘুষি মারাসহ নানাভাবে লাঞ্ছিত করে তাকে থানা থেকে বের করে দেয় এসআই মুনসুর।

এ ঘটনায় ওমর অসুস্থ হয়ে পড়লে তার দুই বন্ধু তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল হাসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান এবং ওমরের বাড়াবাড়ি ছিল বলে দাবি করেন।


সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন