রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

প্রতিশোধের বিষয়টি উড়িয়ে দিলেন জেরার্ডো

স্পোর্টস ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

প্রতিশোধের বিষয়টি উড়িয়ে দিলেন জেরার্ডো

গতবার কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির বিপক্ষে হেরে শিরোপা খুইয়েছিলো লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। এবার শতবর্ষ উপলক্ষে কোপার বিশেষ আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সেই চিলির মুখোমুখি আলবেসিলেস্তরা। মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টায় মুখোমুখি হবে দল দুটি।

এবারও কোপা আমেরিকার অন্যতম ফেভারিট দল তারকাখচিত আর্জেন্টিনা। অন্যদিকে গতবারের চ্যাম্পিয়ন বেশ কিছুদিন ধরেই ঠিক ফর্মে নেই চিলি। তবে গতবারের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ফেভারিট চিলিও। আক্ষরিক অর্থে ম্যাচটি গতবারের দুই ফাইনালিস্টের লড়াই।

সঙ্গত কারণেই আবারও চিলির মুখোমুখি হয়ে একটি শব্দ শুনতেই হচ্ছে জেরার্ডো মার্টিনোর দলকে। অনেকেই এটিকে দেখছেন প্রতিশোধের ম্যাচ হিসেবে। ২০১৫ সালের সেই ফাইনালের পর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। ওই ম্যাচে চিলি ২-১ গোলে হারিয়েছিল আর্জেন্টিনা। তখনও প্রতিশোধের বিষয়টি সামনে এসেছিল।

তবে এবার আরেক কোপা আমেরিকার আসর বলেই প্রতিশোধের বিষয়টি আসছে ঘুরেফিরে। যদিও বিষয়টিকে এভাবে দেখতে নারাজ আর্জেন্টাইন কোচ মার্টিনো। তিনি বলেন, গত মার্চে বাছাইপর্বে খেলার সময়ও আমাদের জিজ্ঞেস করা হয়েছিল এটা প্রতিশোধের ম্যাচ কিনা। কোপা আমেরিকার ফাইনাল এক বছর আগে হয়েছিল। চিলি টাইব্রেকারে জিতেছিল। এমনকি আরও একটি ফাইনালও আমাদের প্রতিশোধের সুযোগ দেবে না। এটা শুধু আমাদের নতুন সুযোগই এনে দিতে পারে।

গতবার কোপা আমেরিকার শিরোপা জেতানো হোর্হে সামপাওলি কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পর থেকে একটু যেন বিবর্ণ চিলি। কোপা আমেরিকার প্রস্তুতিপর্বে জ্যামাইকা ও মেক্সিকোর বিপক্ষে খেলা দুটি ম্যাচই হেরেছে তারা। সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচের চারটিতেই হারের তিক্ত স্বাদ নিতে হয়েছে চিলিকে। আক্রমণভাগের বড় ভরসা আলেক্সিস সানচেস অনেক দিন ধরেই গোল-খরায় ভুগছেন; জাতীয় দলের হয়ে সবশেষ তিনি গোল পান গত অক্টোবরে, বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে পেরুর বিপক্ষে।

অন্যদিকে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের অভিযানের শুরুটা ভালোভাবে না হলেও ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরেছে আর্জেন্টিনা। বাছাই পর্ব আর প্রীতি ম্যাচ মিলিয়ে নিজেদের সবশেষ ৬ খেলায় অপরাজিত তারা; এর মধ্যে আছে টানা চারটি জয়।

আর্জেন্টিনার সব তারকাই আছেন দারুণ ফর্মে। বার্সেলোনার হয়ে দারুণ একটি মৌসুম কাটিয়ে এসেছেন মেসি। গঞ্জালো হিগুয়েন সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে ৩৬ গোল করে ইতালির সিরি-আ'তে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়েছেন।ম্যানচেস্টার সিটিকে শিরোপা জেতাতে না পারলেও সদ্য শেষ হওয়া ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ২৪ গোল করেছে সার্জিও আগুয়েরো। পিএসজির ফরাসি লিগ জয়ে বড় ভূমিকা রাখা অ্যানজেল ডি মারিয়াও আছেন দারুণ ফর্মে।

মুখোমুখি লড়াইয়েও বেশ এগিয়ে আর্জেন্টিনা। র‌্যাংকিংয়ের এক নম্বরে দলটি চিলির সঙ্গে এ পর্যন্ত ৮৬টি ম্যাচ খেলেছে। ৫৭টি জয়ের বিপরীতে হার মাত্র ৬টিতে। তবে আর্জেন্টিনার অস্বস্তির জায়গা এই ম্যাচে নাও খেলতে পারেন দলের সবচেয়ে বড় তারকা লিওনেল মেসি। তার জায়গায় স্কোয়াডে জায়গা পেতে পারেন বেনিফিকায় খেলা স্ট্রাইকার নিকোলাস গাইতান।

গত সপ্তাহেই হন্ডুরাসের সঙ্গে ম্যাচে পিঠে চোট পেয়েছিলেন মেসি। এরপর বার্সেলোনায় উড়ে গিয়ে কর ফাঁকির মামলায় হাজিরা দিয়ে ফের যুক্তরাষ্ট্রে ফিরেছেন। এখনও চোট সারেনি পুরোপুরি। ফলে আপাতত তাকে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে। এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন আর্জেন্টাইন কোচ জেরার্ডো মার্টিনো।

তিনি জানান, যদি মেসি ফিট থাকেন তবে তাকে খেলানো হবে। আমরা আশা করছি, মেসি ম্যাচটি খেলতে পারবে। তার থাকার বিষয়ে শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কারণ, পিঠের নিচের দিকটা খুব স্পর্শকাতর। তা না হলে বিকল্প চিন্তা করতেই হবে। তবে গাইতানকে নিয়ে মার্টিনো বেশ উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেন, 'ও মেসির মতো খেলবে, সেটা তো আমি আশা করা যায় না। তবে আমি চাই ও নিজের সেরার চেয়েও একটু বেশি কিছুই দিক।'

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমটিআই

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩