বুধবার, ২০ জুন, ২০১৮, ৬ আষাঢ় ১৪২৫

ফুটপাথেই ইফতার করলেন শিক্ষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৩ জুন ২০১৮, বুধবার ০৯:৩৮ পিএম

ফুটপাথেই ইফতার করলেন শিক্ষকরা

ঢাকা: ঘন ঘন পুলিশের ধাওয়া খাওয়ার পরও প্রেস ক্লাবের সামনের ফুটপথ ছাড়ছেন না নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা। তারা বলছেন, যতই বাধা আসুক তাদের আন্দোলন থামবে না। এমপিওভুক্তির ঘোষণা নিয়েই তারা ঘরে ফিরবেন। বুধবার (১৩ জুন) সন্ধ্যায় প্রেস ক্লাবের উল্টো দিকে বিএমএ ভবনের সামনে ফুটপাথে বসে ইফতার খাওয়ার সময় শিক্ষকরা এমন ঘোষণা দেন। আন্দোলনের অংশ হিসেবে ফুটপাথেই তারা ইফতার খাচ্ছেন বলে জানান শিক্ষকরা।

এর আগে বুধবার (১৩ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এমপিওভুক্তির দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালনের সময় বিক্ষোভরত তিনজন নারী শিক্ষকসহ পাঁচজনকে আটক করে শাহবাগ থানা পুলিশ। এ সময় পুলিশের পিটুনিতে তিনজন শিক্ষক আহত হন। তবে আটকের কিছু সময় পর দুইজন শিক্ষককে ছেড়ে দিলেও তিনজন নারী শিক্ষককে ছেড়েছে দুপুর ২টার দিকে। এছাড়া প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে শিক্ষকদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) ফের প্রেস ক্লাবের সামনে বসবেন তারা।

জানতে চাইলে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি থেকে পুলিশ পাঁচজন শিক্ষককে আটক করে। এর মধ্যে দুইজন শিক্ষককে কিছু সময় পর ছেড়ে দেয়া হলেও তিন নারী শিক্ষককে ছাড়েন ২টার দিকে। এ সময় তিনজন শিক্ষক পুলিশের পিটুনিতে আহত হন। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে রোববার (১০ জুন) থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এমপিওভুক্তির দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করার ডাক দেন শিক্ষকরা। তবে পুলিশের বাধায় প্রেস ক্লাবের সামনে দাঁড়াতে না পারলেও উল্টো দিকে বিএমএ ভবনের সামনে তারা এ কর্মসূচি পালন করেন।

ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ রায় বলেন, শিক্ষামন্ত্রী গত ১০ বছর ধরে বলে আসছেন বাজেটে বরাদ্দ থাকলে এমপিওভুক্ত করা হবে। অথচ নতুন করে তিনি মিথ্যাচার করে বলেছেন, বাজেটে বরাদ্দ জরুরি বিষয় নয়, থোক বরাদ্দ থেকে এমপিওভুক্ত হবে। এমপিওভুক্তি নিয়ে মন্ত্রীর এই বক্তব্য গেজেট আকারে প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, এমপিওভুক্তির দাবিতে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর থেকে প্রেস ক্লাবের সামনে লাগাতার কর্মসূচি শুরু করেন। নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের ডাকে টানা ওই অবস্থান ও অনশনের একপর্যায়ে গত ৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে তার তৎকালীন একান্ত সচিব সাজ্জাদুল হাসান সেখানে গিয়ে আশ্বাস দেন।

এরপর শিক্ষক-কর্মচারীরা আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেন। এরপর সরকারের বিভিন্ন পর্যায় থেকে বলা হয়েছে আসন্ন অর্থবছরে নতুন বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হবে। কিন্তু গত ৭ জুন জাতীয় সংসদে পেশ করা বাজেটে তিনি নতুন এমপিওভুক্তির বিষয়ে সুস্পষ্ট কিছু বলেননি।

বাজেটে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুই বিভাগের জন্য ৫৩ হাজার ৫৪ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। এটি প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটে খাতওয়ারি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বরাদ্দ। তবে বরাদ্দের ক্ষেত্রে প্রাথমিক বিদ্যালয়, কারিগরি বিদ্যালয় ও কলেজ নির্মাণসহ বিভিন্ন অবকাঠামোর ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue