শনিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০১৭, ১৬ বৈশাখ ১৪২৪

ফুটবলের হারানো গৌরব ফেরাতে চান ক্রুইফ

স্পোর্টস রিপোর্টার | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

ফুটবলের হারানো গৌরব ফেরাতে চান ক্রুইফ

জাতীয় দলের কোচ হিসেবে লোডভিক ডি ক্রুইফের ফেরাটাই ছিল চমকপ্রদ ঘটনা। শিষ্যদের নিয়ে প্রথম অনুশীলনে নামার আগে এক মাসের জন্য কোচ হয়ে আসা এই ডাচ দিলেন আরও চমক জাগানো প্রতিশ্রুতি। বাংলাদেশের ফুটবলের ‘হারানো গৌরব’ ফিরিয়ে আনতে চান তিনি!

গত বছর সেপ্টেম্বরে ছাঁটাই হওয়া ক্রুইফ ঢাকায় পা রাখেন মঙ্গলবার ভোরে। হালকা বিশ্রাম নিয়ে বিকালে চলে আসেন বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বে ওঠার প্লে-অফ ম্যাচের জন্য চলা অনুশীলন ক্যাম্পে। পুরনো শিষ্যদের নিয়ে ‘নতুন’ করে অনুশীলনে নামার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ক্রুইফ জানান লক্ষ্যটা।

“আমি মনে করি, গত বছর বাংলাদেশের ফুটবল গভীর পানিতে ছিল। যখন আপনারা জাতীয় দলের ফলগুলো দেখবেন, সেখানে গর্ব করার মতো কোনো কিছু নেই। এক বছর আগে আমরা যেভাবে খেলতাম, যে ইতিবাচকভাবে ভাবতাম, সেই ভালো অনুভূতিগুলো ফিরিয়ে আনাই আমার অন্যতম কাজ।”

“(দলের বর্তমান) পরিস্থিতিটা আমি জানি; স্বল্প সময়ে দলটা গড়ে তোলার পথটাও জানা আমার। আমার প্রতি খেলোয়াড়দের সমর্থন আছে এবং আমার ফেরার পেছনে এটাও একটা গুরুত্বপূর্ণ কারণ। কিছুটা হলে (বাংলাদেশের ফুটবলের) গৌরব আমাদের ফিরিয়ে আনতে হবে। হারানো ছন্দও ফিরিয়ে আনতে হবে, যাতে করে আমরা সবাইকে খুশি করতে পারি।”

প্লে-অফে আগামী ২ জুন দুশানবেতে এবং ৭ জুন ফিরতি লেগে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে তাজিকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। তাজিকিস্তানকে হারাতে না পারলেও সুযোগ থাকবে বাংলাদেশের। সে ক্ষেত্রে ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকায় ও ১১ অক্টোবর ভুটানের মাঠে প্লে-অফের দ্বিতীয় রাউন্ডের লড়াইয়ে জিততে হবে।

২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের এশিয়া অঞ্চলের বাছাইয়ে তাজিকিস্তানের সঙ্গে নিজেদের মাঠে ড্র করাটাই বাংলাদেশের একমাত্র পাওয়া। তবে দুশানবের ম্যাচে তাজিকিস্তানের কাছেই ৫-০ গোলে বাছাই পর্বের ফিরতি লেগে উড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। প্লে-অফে ক্রুইফের নতুন মিশন শুরু হবেও তাজিকিস্তানের বিপক্ষে।

তাজিকিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের মাঠে সেই ড্র, অ্যাওয়ে ম্যাচের ভরাডুবি নিয়েও কথা বলেন ক্রুইফ। এবার তার আশা, প্রতিপক্ষের মাঠে ভালো করা।

“এখানে যে ম্যাচটা ড্র হয়েছিল, আমি মনে করি, ওই ম্যাচে জয়টা আমাদের প্রাপ্য ছিল। সবকিছু আমাদের হাতে ছিল। অনেক সুযোগ তৈরি করেছিলাম আমরা। ম্যাচে একটা দলেরই জেতার কথা ছিল, সেটা বাংলাদেশ। অ্যাওয়ে ম্যাচে আমি ছিলাম না। ৫-০ গোলের হার, ছেলেরা কোনো সুযোগও তৈরি করতে পারেনি। কিভাবে তাজিকিস্তানের মাঠে (এবারও) টিকে থাকা যায়, সে কাজটা করাও কঠিন হবে। দলকে শারীরিক ও কৌশলগত দিক থেকে ভালোভাবে প্রস্তুত করব। তাজিকিস্তানে আমাদের ভালো ফল করতে হবে। দেখি, তাদের এবার আমরা হারাতে পারি কি না।”

এক মাস মেয়াদে দায়িত্বটা যে গৌরব ফেরানোর জন্য যথেষ্ট নয়, তা মানছেন ক্রুইফও। লম্বা সময়ের জন্য কোচিং স্টাফ পাওয়া পরিকল্পনা সাজানোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ বলে জানান নেদারল্যান্ডসের এই কোচ।

নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে ক্যাম্পে মামুনুল ইসলাম ও সোহেল রানাকে ক্যাম্পে ফিরিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। ক্রুইফ জানালেন, মামুনুলদের পেতে চেয়েছিলেন তিনি।

“সভাপতির সঙ্গে আমার প্রথম কথা ছিল, যদি আপনি পারফর্ম করতে চান, তাহলে আপনাকে কিছু খেলোয়াড়কে ফিরিয়ে আনতে হবে। অন্যথায় কোনো সুযোগ নেই। মামুন দলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, সে অধিনায়ক। আমি খেলোয়াড়দের কি বলতে চাইছি, নির্দেশনা দিচ্ছি, সেটা সে বোঝে। একইভাবে মামুনুলের মতো সোহেলকেও দলের জন্য দরকার; কেননা সে বাঁ পায়ের খেলোয়াড়; পৃথিবীতে কম ফুটবলারই বাঁ পায়ে খেলে।”

“জাহিদ ও ইয়াসিনকেও আমি খুব ভালো করে জানি। তাদের ম্যাচে ফেরার জন্য আরও সময় দরকার। এই মুহূর্তে আমরা তাদেরকে বাদ দিতে পারি কিন্তু এ দুজনও দেশের সেরা খেলোয়াড়। যখন আপনি, সেরা খেলোয়াড়দের ছুঁড়ে ফেলবেন, তখন আপনি পাগল।”

২০১৩ সালের জুলাই থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু করা ক্রুইফ শেষ দিকে ছিলেন অনিয়মিত; কাজ করেছেন অ্যাসাইনমেন্ট ভিত্তিকভাবে। এবার অল্প সময়ে দায়িত্ব নিয়ে এলেও দলের অবস্থা নিয়ে সন্তুষ্ট ক্রুইফ। ইতিবাচক মনোভাব নিয়ে অল্প সময়ে শিষ্যদের কাছ থেকে সেরাটা পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী তিনি।

“দলের যে কন্ডিশন তাতে আমি সন্তুষ্ট; কেননা, ছেলেরা সম্প্রতি একটা টুর্নামেন্ট খেলেছে। সময়টা কম কিন্তু জাতীয় দল নিয়ে সবসময় অল্প সময় পাওয়া যায়। আমরা আর এক মিনিটও নষ্ট করতে চাই না। দল নিয়ে আমার মনোভাব ইতিবাচক। আশা করি, সবাই মিলে আমরা কাজটা করতে পারব।”

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমটিআই

Sonali Bazar

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue
শনিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০১৭, ১৬ বৈশাখ ১৪২৪