বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

ফ্রেশ থাকার কয়েকটি নিয়ম

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৬ পিএম

ফ্রেশ থাকার কয়েকটি নিয়ম

সোনালীনিউজ ডেস্ক

কত কারসাজিই না করেন শরীরে জমা টক্সিন সরাতে । কিন্তু, এক বার ডিটক্সের পর যেন ভাববেন না তার সুফল দীর্ঘস্থায়ী হবে। ডিটক্সের সুফল ধরে রাখতে মেনে চলুন কয়েকটি নিয়ম।
 
১) প্রতিদিন একই সময় লাঞ্চ-ডিনার করুন।  বডি ক্লকের ঠিকঠাক কাজ করার জন্য রোজ একই সময় খাবার খান।
২) প্রচুর পরিমাণ পানি পান করুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস পানি পান করুন। এতে শরীর থেকে টক্সিন বের হয়ে যাবে। সেই সঙ্গে ডিহাইড্রেশনও হবে না। সারা দিনে অন্তত দেড় তেকে দু’লিটার পানিপান করুন।
৩) ডিনারে কার্বোহাইড্রে়ড এড়িয়ে চলুন। দেহে এনার্জির যোগান দেয় কার্বোহাইড্রে়ড। যেহেতু ঘুমের আগে বেশি এনার্জির প্রয়োজন নেই, সেহেতু ডিনারে কার্বোহাইড্রে়ড জাতীয় খাবার যেমন, আলু, ভাত বা পাস্তা খাবেন না।
৪) লাঞ্চ-ডিনারের সঙ্গে ফল খাবেন না। ব্রেকফাস্টের সঙ্গে এক-আধটা ফল খাওয়া যেতে পারে। কিন্তু, লাঞ্চ বা ডিনারের সঙ্গে ফল খেলে তা দেহে সুগারের মাত্রা বহু গুণ বাড়িয়ে দেয়। এর ফলে ক্যালারির পরিমান বেড়ে যায়। তা ছাড়া, ফল খেলে অনেকের অ্যাসিডিটি হওয়ার প্রবণতা থাকে।
৫) পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমোন। দিনে অন্তত সাড়ে ছয়ঘণ্টা থেকে আটঘণ্টা ঘুমান। বেশি ঘুমালেও যেমন ক্ষতি, কম ঘুমালেও সমান অসুবিধা হয়। পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমের ফলে দেহে মেটাবলিজম ঠিক থাকে।
৬) সঠিক তেলে রান্না করুন। অনেকেই ওজন কমাতে অলিভ অয়েলকেই সেরা মনে করে। ডায়েটিশিয়ানদের মতে, সর্ষে বা নারকেল তেলও কিন্তু কম গুণের নয়। তবে পাম অয়েল এড়িয়ে চলুন। এতে  ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে, যা স্যাচুরেটেড ফ্যাট বাড়িয়ে দেয়।
৭) প্রতিদিন সামান্য পরিমাণ ঘি খান। শুনলে অবাক হবেন, রোজকার খাবারের সঙ্গে একটু ঘি খেলে ওজন কমে।

সোনালীনিউজ/এন

add-sm
Sonali Tissue
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩