বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

‘বাংলাদেশের হিন্দুরা ভারতে চলে যেতে চায়’

সোনালীনিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

‘বাংলাদেশের হিন্দুরা ভারতে চলে যেতে চায়’

বাংলাদেশের হিন্দুদের উপর যেভাবে অত্যাচার-নির্যাতন চলছে তাতে তাদের মনোবলে ‘চিড়’ ধরেছে। তাই নিরাপত্তা না দেয়া হলে তারা দেশ ছেড়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে চলে যেতে চায়। এমনটাই জানিয়েছেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির একজন কেন্দ্রীয় নেতা।

বর্তমানে বাংলাদেশ সফররত বিজেপির একটি প্রতিনিধি দলের সদস্য অরুন হালদার বলেছেন, বাংলাদেশের বহু হিন্দু তাদের বলেছে যে দেশটিতে তারা নিরাপদ বোধ করছে না।

তিনি বলেন, দেশে ফিরে বাংলাদেশের হিন্দুদের এই মনোভাব তারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে তুলে ধরবেন।

বাংলাদেশের মাদারীপুর জেলায় একটি সংগঠনের আমন্ত্রণে ‘আন্তর্জাতিক সনাতন ধর্ম সম্মেলনে’ যোগ দিতে এই দলটি কয়েকদিন আগে বাংলাদেশে আসে।

যে তিনজন রাজনীতিবিদ এই দলে রয়েছেন তাদের একজন হচ্ছেন বিজেপির’র ন্যাশনাল এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্য অরুণ হালদার। বাকি দু’জনের একজন হচ্ছেন বিজেপি’র সমমনা রাজনৈতিক দল রিপাবলিকান পার্টি অব ইন্ডিয়ার সভাপতি রামদাস আতোয়াল এবং অন্যজন পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি’র নেতা সুরেশ পুজারী।

বাংলাদেশের সরকারি সূত্রগুলো বলছে, ভারতীয় এই দলটির সফর সরকারী পর্যায়ের কোন সফর নয়। কিন্তু তারপরেও তারা যে দেশের বিভিন্ন জায়গায় যাচ্ছে সে বিষয়ে সরকার অবহিত। দলটি মাদারীপুর ছাড়াও ঝালকাঠি, পটুয়াখালি এবং চট্টগ্রাম সফর করেছে।

মঙ্গলবার ঢাকায় মি হালদার বলেন, ‘(মাদারীপুরের) সম্মেলন থেকে আওয়াজ উঠেছে যে হয় আমাদের সুরক্ষার-নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হোক, না হলে আমরা এখান থেকে দলে-দলে সব পশ্চিমবঙ্গে চলে যাব।’

হালদার আরো বলেন, বাংলাদেশে বিভিন্ন জায়গায় হিন্দুদের উপর ‘আক্রমণ এবং নির্যাতনের’ বিষয় নিয়ে ভারত সরকার চিন্তিত।

বাংলাদেশে হিন্দুদের নিরাপত্তা নিয়ে বিজেপির নেতার বক্তব্য সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বিবিসিকে বলেন, ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা বিধানের জন্য সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ।

‘দলীয়ভাবে আমরা ধর্মনিরপেক্ষ যেমন, কিংবা সরকারের দিকে যদি তাকান দেখবেন সেখানে সংখ্যালঘুদের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি। চাকরি বলুন কিংবা অন্যান্য জায়গাতেই বলুন, সব জায়গাতেই।’ সূত্র: বিবিসি

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমএইউ

add-sm
Sonali Tissue
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩