শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

বান্দার প্রতি আল্লাহর যে সব অধিকার

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৬ পিএম

বান্দার প্রতি আল্লাহর যে সব অধিকার

সোনালীনিউজ ডেস্ক

বান্দার প্রতি আল্লাহ তআলা হক বা অধিকার হলো মানুষ শুধুমাত্র তাঁরই ইবাদাত করবে। তাঁর সঙ্গে কাউকে শরিক করবে না। নাফরমানি ও অবাধ্যতা থেকে বিরত থেকে তার পূর্ণ আনুগত্য করবে।

অপারগতা ও অজ্ঞতা এবং চরম অবহেলা ও বাড়াবাড়ির কারণে আল্লাহর সঙ্গে বান্দা অপরাধ করতে পারে। এ কারণে যদি আল্লাহ তাআলা বান্দাকে আজাব বা শাস্তি দেন, তাহলে সেটা বান্দার উপর জুলুম হবে না। আর যদি তিনি চান বান্দাকে ক্ষমা করে দিতে পারেন। যা আল্লাহর একান্ত রহমত। এ ব্যাপারে হাদিসে এসেছে-

হজরত মুয়াজ ইববে জাবাল রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন আমি বিশ্বনবীর পিছনে ‘উফায়ের’ নামক গাধার উপর বসা ছিলাম। তখন তিনি বললেন, ‘হে মুয়াজ! তুমি কি জান বান্দার উপর আল্লাহর হক এবং আল্লাহর উপর বান্দার হক কি? মুয়াজ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন- আমি বললাম, এ ব্যাপারে আল্লাহ ও তাঁর রাসুলই বেশি জানেন। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন-

বান্দার উপর আল্লাহর হক হলো- একমাত্র তাঁরই ইবাদাত করবে এবং তাঁর সাথে কাউকে শরিক করবে না।
আর আল্লাহর উপর বান্দার হক হলো- যে তাঁর সঙ্গে কাউকে শরিক করে না তাকে শাস্তি না দেয়া।
মুয়াজ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, ‘আমি বললাম, হে আল্লাহর রাসুল! এ ব্যাপারে মানুষকে সুসংবাদ প্রদান করি?

তিনি (রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেন- তাদের সুসংবাদ দিও না, কারণ তারা হাত-পা গুটিয়ে পরনির্ভরশীল হয়ে কাজ-কর্ম ওইবাদাত করা ছেড়ে বসে থাকবে।’ (বুখারি ও মুসলিম)

এ হাদিসটি মুসলিম উম্মাহর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হাদিস। বান্দা সর্বদা আল্লাহর বিধি-বিধান ও ইবাদাত-বন্দেগি করে তাঁর নৈকট্য অর্জন করবে। বান্দা জমিনে ইসলাম প্রতিষ্ঠায় স্বচেষ্ট থাকবে। আল্লাহ তাআলা সবাইকে এ হাদিসের আলোকে আল্লাহর হকসমূহ যথাযথভাবে আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩