বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

বিচারপতির বক্তব্যে সরকারে ভূমিকম্প সৃষ্টি হয়েছে: জ

আপডেট: ১৫ জুন ২০১৬, বুধবার ১২:০৯ পিএম

বিচারপতির বক্তব্যে সরকারে ভূমিকম্প সৃষ্টি হয়েছে: জ

নিজস্ব প্রতিবেদক

অবসর গ্রহণের পর বিচারকের রায় লেখা বেআইনি ও অসাংবিধানিক মর্মে প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার দেয়া বক্তব্যে সরকারে ভূমিকম্পের সৃষ্টি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান। শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে জিয়া নাগরিক ফোরাম আয়োজিত বন্দিদশা থেকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার শীর্ষক এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি তার ওপর অর্পিত দায়িত্ববোধ থেকে সাহস করে সত্য কথা বলেছেন। এজন্য তাকে স্বাগত জানাই। তার বক্তব্য অনুযায়ী পঞ্চদশ সংশোধনী বেআইনি ও অসাংবিধানিক হয়ে যাবে। সুতরাং অবৈধ হয়ে যাবে দশম জাতীয় সংসদও। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮০তম জন্মবার্ষিকী ও জিয়া নাগরিক ফোরামের ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। জেনারেল মাহবুব বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশে ৬ দশমিক ৭ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছিল। এবার অবসর গ্রহণের পর বিচারকের রায় লেখা বেআইনি ও অসাংবিধানিক মর্মে বক্তব্য দিয়ে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা দেশে আরেকটি ভূমিকম্প সৃষ্টি করলেন। তার এ সত্য বক্তব্যে সরকারে ভূমিকম্প সৃষ্টি হয়েছে। তিনি আরো বলেন, দেশে চরম সঙ্কট চলছে। এ সঙ্কট রাজনীতির, নেতৃত্বের, অর্থনীতির, সমাজ ব্যবস্থার, রাষ্ট্রীয় অস্তিত্বের ও জাতীয় নিরাপত্তার। সবচেয়ে নাজুক অবস্থায় আছে জননিরাপত্তা। কারণ, দেশি-বিদেশি নাগরিক এখন আর নিরাপদ বোধ করছে না। বাংলাদেশে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিকরাও তাদের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত। দূতাবাসগুলোকে তাদের দেশের পক্ষ থেকে নাগরিকদের বাইরে কম চলাফেরা করে ঘরে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, অনেকদিন ধরেই বিএনপি ভাঙার ষড়যন্ত্র চলছে। কিন্তু বিএনপি ভাঙার দল নয়, ভেসে যাওয়ারও দল নয়। বিএনপির শহীদ জিয়ার হাতে গড়া একটি উদার গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। তাই যত চেষ্টাই করা হোক না কেন, এ দলকে ভাঙা যাবে না। বিএনপি অমর-অক্ষয়-অব্যয়। জিয়াউর রহমানের চেতনায় উদ্বুদ্ধ থাকলে আমাদের ভয়ের কিছু নেই। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি লায়ন মিয়া মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কেএ জামানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে আর বক্তব্য দেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপির প্রচার সম্পাদক জয়নুল আবদিন ফারুক, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, কল্যাণ পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদুর রহমান তামান্না, এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত এবং খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

 

সোনালীনিউজ/এমএইউ

add-sm
Sonali Tissue
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩