বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

বিবাহিত জীবনে ঘুমের যত অজানা প্রভাব

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৩ পিএম

বিবাহিত জীবনে ঘুমের যত অজানা প্রভাব

সোনালীনিউজ ডেস্ক
সম্পূর্ণ দুই রকম দুটি মানুষ যখন দাম্পত্য সম্পর্কে আবদ্ধ হয় তখন নানান রকমের সমস্যাই তো হতে পারে তাইনা? কিন্তু বিয়ের পরে ঘুমের সমস্যা কি প্রভাব ফেলতে পারে দাম্পত্য সম্পর্কে?

ঘুম তো মানুষের প্রতিদিনের অপরিহার্য একটি প্রয়োজন। এই ঘুমে যখন ব্যাঘাত ঘটে তখন স্বাভাবিক ভাবেই এর প্রভাব পড়ে দাম্পত্য সম্পর্কে। জেনে নিন আপনার বিবাহিত জীবনে ঘুমের কিছু অজানা প্রভাব সম্পর্কে।

১) সিনেমার রোমান্টিক দৃশ্যগুলোতে স্বামী-স্ত্রী একে অপরকে আলিঙ্গন করে ঘুমিয়ে পড়ে। আর এরকম দৃশ্য দেখে নিশ্চয়ই আপনিও মনে মনে এমন একটা সম্পর্কের স্বপ্ন দেখেন তাইনা?

কিন্তু বাস্তব জীবনে এমন সম্পর্ক খুব কমই খুঁজে পাওয়া যায়। বিভিন্ন গবেষণা অনুযায়ী যেসব দম্পতিরা মাত্র ১ ইঞ্চি বা তার কম দূরত্বে ঘুমায় তাদের ৯৪% সম্পর্কের ক্ষেত্রে সুখী হয়ে থাকে। ইংল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অফ হার্টফোর্ডশির এর একটি জরিপে দেখা গিয়েছে যে অধিকাংশ দম্পতিই মুখোমুখি না ঘুমিয়ে বিপরীত দিকে মুখ ফিরিয়ে বেশ দূরত্বে ঘুমিয়ে থাকে।

২) রাতে ঘুম না হলে নানান রকমের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়াও চোখের নিচে পড়ে যায় কালি। কারো চোখের নিচে কালি দেখলে অনেকেই ধরেই নেন যে সেই ব্যক্তির জীবনে অশান্তি চলছে। আর ধরে নেয়ার পেছনে যথেষ্ট কারণও আছে। কারণ সারাদিন ঝগড়াঝাটির পরে অধিকাংশ যুগলেরই রাতের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে।

ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়ার ২০১৩ সালের একটি গবেষণায় বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছিলো। সোশ্যাল, সাইকোলজিক্যাল এন্ড পারসোনালিটি সাইন্স ম্যাগাজিনে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছিলো। সেখানে এটাও বলা হয় যে ঘুমের ঘাটতি হলে সঙ্গীর আবেগ-অনুভূতি বোঝা যায়না এবং নেতিবাচক মনোভাব বৃদ্ধি পায়। ফলে ঝগড়াঝাটি বৃদ্ধি পেতেই থাকে।

৩) গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে বিয়ের পর সঙ্গীর নাক ডাকায় অতিষ্ট হয়ে অনেকেই ডিভোর্সের পথ বেছে নেন। কেউ কেউ বিষয়টা সহ্য করে নিলেও দেখা দেয় নানান রকমের দাম্পত্য সমস্যা ও সম্পর্কের প্রতি বিরক্তি।

৪) জানুয়ারী ২০১৩ এর ইউসি বারকেলে স্টাডিতে বলা হয়েছে যে যেসব দম্পতি বেশিরভাগ রাত নির্ঘুম কাটিয়ে দেয় তাদের মধ্যে সহনশীলতা কম এবং একে অপরের প্রতি তারা কোনো কিছু নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে পারে না।

৫) ন্যাশনাল ইন্সটিটিউটস অফ হেলথ এর ২০১১ এর একটি গবেষণায় জানানো হয় যে যেসব স্ত্রীরা নির্ঘুম রাত কাটান কিংবা পর্যাপ্ত পরিমাণে গভীর ঘুম হয়না তাদের অধিকাংশই সকালে খিটখিটে মেজাজে থাকেন এবং স্বামীর সাথে ঝগড়া শুরু করেন কারণে অকারণে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩