শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৮, ৪ কার্তিক ১৪২৫

বিশ্বকাপ শুরুর দিনে আফগানিস্তানের ঐতিহাসিক টেস্ট

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার ০১:০৮ এএম

বিশ্বকাপ শুরুর দিনে আফগানিস্তানের ঐতিহাসিক টেস্ট

ফাইল ফটো

ঢাকা: সবার চোখ এখন রাশিয়ার দিকে। ক্রিকেটের খবর তাই সবার কাছে গৌণ হয়ে গেছে। তারপরও ১৪ জুন আফগানিস্তানের কাছে ঐতিহাসিক একটা দিন। তারা যে ভারতের বিপক্ষে বেঙ্গালুরুতে অভিষেক টেস্ট খেলতে নামছে।

বিরাট কোহলি না খেললেও ধারেভারে এগিয়ে আজিঙ্কা রাহানের ভারতই। ঋদ্ধিমান সাহা চোটের জন্য নেই। তাঁর জায়গায় খেলবেন দিনেশ কার্তিক। অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে টিম ইন্ডিয়া। কার্তিক বলেছেন, ‘আমাদের কুলদীপ যাদব ২৪টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছে। যার মধ্যে ৪ দিনের ম্যাচও রয়েছে। রয়েছে ২টি টেস্ট।

যেখানে আফগানিস্তানের তিন স্পিনারের মধ্যে রশিদ খান খেলেছেন ৪টি চারদিনের ম্যাচ। জহির খান খেলেছেন ৭টি চারদিনের ম্যাচ। জারদান একটিও প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেননি।’

যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান ক্রিকেটে বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। রশিদ খান, মোহাম্মদ নবিরা আইপিএল খেলছেন। তবুও ভারতীয়দের চেয়ে অনেক পিছিয়ে তাঁরা। আফগান অধিনায়ক আসগর স্টানিজকাইকে শ্রদ্ধা রেখেই কার্তিক বলেছেন, ‘ভারতীয় স্পিনাররা রশিদ খান কিংবা মুজিবুর রহমানের মতো টি-টোয়েন্টি বিশেষজ্ঞ বোলারদের চেয়ে অনেক এগিয়ে।’

সম্প্রতি টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করার পর আফগান অধিনায়ক স্টানিজকাই বলেছেন, ভারতের চেয়ে তাদের স্পিনাররা অনেক এগিয়ে। সেই প্রেক্ষিতেই কার্তিক বলেছেন, ‘স্টানিজকাই কী বলেছে তা আমি জানি না। তবে অভিজ্ঞতায় আমাদের স্পিনাররা অনেক এগিয়ে। শুধু টেস্ট নয়। ঘরোয়া ক্রিকেটেও অভিজ্ঞতা প্রচুর তাঁদের।’

টেস্টে ভারতের দুই বিশেষজ্ঞ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজার সম্মিলিত উইকেটসংখ্যা ৪৭৬। কার্তিকের মন্তব্য, ‘অভিজ্ঞতা যে পার্থক্য গড়ে দেয় তা আইপিএলে চেন্নাই দেখিয়ে দিয়েছে। আফগান স্পিনাররা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভালো করছে। কিন্তু পাঁচ দিনের ক্রিকেট সম্পূর্ণ আলাদা।’

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue