বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১১ ফাল্গুন ১৪২৩

বিশ্বনবীর ভাষায় শহীদ যারা

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৪৩ পিএম

বিশ্বনবীর ভাষায় শহীদ যারা

সোনালীনিউজ ডেস্ক
ইসলামে শহীদের মর্যাদা অত্যন্ত গুরুত্ব ও তাৎপর্যপূর্ণ। ইহা একটি ইসলামী পরিভাষা। যা কোনো সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিভাষা নয়। সুতরাং শহীদের মর্যাদা লাভের জন্য প্রথম ও প্রধান শর্ত হচ্ছে মুসলিম হতে হবে।

হযরত জাবের বিন আতিক রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, আল্লাহর পথে মৃত্যুবরণ করা ছাড়াও সাত প্রকার শহীদ রয়েছে।

তারা হলো-
১- মহামারীতে মৃত্যুবরণকারী,
২- পানিতে নিমজ্জিত ব্যক্তি,
৩- শয্যাশায়ী অবস্থায় মৃত শহীদ,
৪- পেটের রোগে মৃত্যুবরণকারী,
৫-আগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণকারী,
৬- যে ব্যক্তি ধ্বংসাবশেষের নিচে পড়ে মারা যায়,
৭- প্রসবকালীন সময়ে মৃত্যুবরণকারী নারী। (মুয়াত্তা মালিক)

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অন্য হাদিসে আরো বলেন-
১. যে ব্যক্তি তার দ্বীনের (ইসলাম) জন্য নিহত হয়;
২. যে ব্যক্তি তার জীবন রক্ষার্থে নিহত হয়;
৩. যে ব্যক্তি তার সম্পদ রক্ষার্থে নিহত হয়;
৪. যে ব্যক্তি তার পরিবার রক্ষার্থে নিহত হয়, সে শহীদ। (মুসলিম, মিশকাত)
মুসনাদে আহমাদে এসেছে, যে ব্যক্তি অত্যাচারের স্বীকার হয়ে (মযলূম অবস্থায়) নিহত হয়, সেও শহীদ।’
উল্লেখ্য যে, ঐ সকল মুমিন ব্যক্তি আখিরাতে শহীদের নেকী ও মর্যাদা পাবেন। যদিও দুনিয়াতে তাদের গোসল ও জানাযা করা হবে।

শহীদের শ্রেণী বিভাগ
১. যারা দুনিয়া ও আখিরাতে শহীদ। তাঁরা হলেন- কাফিরদের সঙ্গে যুদ্ধে নিহত মুমিন ব্যক্তি;
২. আখিরাতে শহীদ। তারা হলো উপরে বর্ণিত দ্বীনের (ইসলামের)জন্য ব্যতিত অন্যান্য শহীদগণ;
৩. দুনিয়াতে শহীদ, আখিরাতে নয়। তারা হলো- যুদ্ধের ময়দানে গণীমতের মাল আত্মসাৎকারী অথবা জিহাদ থেকে পলাতক অবস্থায় নিহত ব্যক্তি।’ (ফিক্বহুস সুন্নাহ)

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

Sonali Bazar
add-sm
Sonali Tissue
বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১১ ফাল্গুন ১৪২৩