শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭, ৬ কার্তিক ১৪২৪

ভাবিকে বিয়ে করতে ভাইকে খুন!

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ অক্টোবর ২০১৭, বৃহস্পতিবার ০৯:২০ পিএম

ভাবিকে বিয়ে করতে ভাইকে খুন!

প্রতীকী ছবি

কুষ্টিয়া: ভাবিকে বিয়ের করার জন্য বড় ভাই রাকিব হোসেনকে (৩২) খুন করলেন ছোট ভাই রাকিবুল ইসলাম। আর এই কাজে দেবরকে সহযোগিতা করেছেন ভাবি নাইমা সুলতানা ওরফে তিশা।

বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার এস এম মেহেদী হাসান এ তথ্য জানান।

পুলিশ সুপার বলেন, হত্যার পরিকল্পনাসহ সব তথ্য স্বীকার করে রাকিবুল বুধবার (১১ অক্টোবর) কুমারখালীর আমলি বিচারিক হাকিম আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী বুধবারই নাইমাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) বিকেলে একই আদালতে নাইমাও ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন নাইমা ও রাকিবুল। কিন্তু এতে আরো চার থেকে পাঁচজন অংশ নেয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদেরও গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। এরমধ্যে একজন পুলিশের নজরদারিতে আছেন, যেকোনো সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হবে।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাকিব ১০ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় ছিলেন। এর মধ্যে চারবার দেশে আসেন। গত দুই মাস আগে মালয়েশিয়া থেকে ছুটিতে আবারো বাড়িতে আসেন রাকিব। গত ৫ অক্টোবর রাতে শ্বশুরবাড়ি কাঞ্চনপুর থেকে পাহাড়পুরে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন তিনি। রাত ১০টা থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পান পরিবারের সদস্যরা। রাকিব-তিশা দম্পতির ঘরে চার বছরের একটি মেয়ে আছে।

এদিকে রাকিবের খোঁজ না পেয়ে পরের দিন কুমারখালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন পরিবারের সদস্যরা। নিখোঁজের দুই দিন পর গত ৭ অক্টোবর বাড়ির পাশের কালীগঙ্গা নদী থেকে রাকিবের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় গত ৯ অক্টোবর কুমারখালী থানায় আটজনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা করেন রাকিবের বাবা। মামলায় এজাহারভুক্ত তিন ব্যক্তি বর্তমানে কারাগারে আছেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমএইচএম

Sonali Bazar

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue