শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩

ভারতীয় অধ্যাপকের সংসার ভাঙছেন মুস্তাফিজ!

স্পোর্টস ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

ভারতীয় অধ্যাপকের সংসার ভাঙছেন মুস্তাফিজ!

‘কাটার-মাস্টার’, ‘ক্রিকেট সেনসেশন’; কত নামেই না ডাকা হচ্ছে মুস্তাফিুজর রহমানকে! আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকে মাত্র এক বছরের মধ্যেই বাংলাদেশের এই বাঁহাতি পেসার পরিণত হয়েছেন ‘বিশ্ব ক্রিকেটের অসামান্য সম্পদে’। আর এমন এক সম্পদকে নিয়ে যে ক্রিকেটবিশ্বে টানাটানি শুরু হবে, তাতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। 

প্রথমবারের মতো আইপিএলে (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) অংশ নিয়ে ক্রিকেট অঙ্গনে হইচই ফেলে দিয়েছেন বাংলাদেশের এই ‘কাটারবয়’। একের পর এক প্রশংসা কুড়িয়েই চলেছেন তিনি। তার প্রতিভার ঝলকে সবাই অভিভূত। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে মুস্তাফিজের নাম। মাত্র এক বছরেই এমন সাফল্য সত্যিই অসাধারণ।

আর হবেই না কেন? মুস্তাফিজ তো নিজের শুরুটাই করেছেন চমক দিয়ে। আর সেই ধারাবাহিকতা তিনি বজায় রেখেছেন বেশ ভালোভাবেই। তাইতো শুধু ক্রিকেট অঙ্গনেই নয়, তার আলোচনা হয় সর্বক্ষেত্রে।

প্রথমবারের মতো ভারতের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা, আইপিএলে খেলতে গিয়ে ক্রিকেটবিশ্বের নজর আরো ভালোভাবে কেড়েছেন মুস্তাফিজ। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে আয়োজিত টি-টোয়েন্টি লিগের দলগুলোও যে তাঁকে পেতে চাইবে, সে আভাস এখনই পাওয়া যাচ্ছে ভালোমতো।

মুস্তাফিজের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ভর করে আইপিএলের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান দখল করেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। গত তিন দিনে ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ‘ক্রিকইনফো’য় সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে মুস্তাফিজকে।

এইতো সেদিন এশিয়াটিক সোসাইটির চতুর্থ মাসিক সাধারণ সভা ছিল। যেখানে আলোচনার বিষয় ছিল ‘বৈশ্বিক প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক’। যেখানে আলোচনা করছিলেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। সেই আলোচনাতেও কিন্তু স্থান করে নিয়েছিলেন মুস্তাফিজ।

সেখানে তো বিদ্যুৎ চক্রবর্তী রীতিমতো মুস্তাফিজের বিরুদ্ধে অভিযোগই করে বসলেন। তিনি নাকি সংসার ভাঙছেন অধ্যাপকের! বিস্ময়কর ব্যাপারই বটে। অনেক ব্যাটসম্যানের স্টাম্প ভেঙ্গেছেন তিনি; কিন্তু মুস্তাফিজ কিভাবে কারও সংসারে ভাঙ্গন ধরাবেন? সে তো অধ্যাপককে চিনেনই না। তাহলে কিভাবে সম্ভব এই অসম্ভব কাজটি?

ঘটনার খোলাসা অধ্যাপক নিজেই করলেন। তিনি জানান, সে বিরাট কোহলির ভক্ত। আর তার ছেলেমেয়েরা সবাই মুস্তাফিজের ভক্ত। এমনকি তার বউও। তাই এখন এমন হয়েছে মুস্তাফিজের কারণেই তার সংসারে দ্বন্দ্ব লাগে।

এছাড়াও অধ্যাপক বলেন, ‘এখন ভারতে মুস্তাফিজের যত ভক্ত আছে, ভারতীয় তারকা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিরও ততটা নেই। আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে সে যেভাবে খেলছে, তা সত্যিই প্রশংসা করার মতো। স্বাভাবিক কারণে তার ভক্তের সংখ্যা ভবিষ্যতে আরও অনেক বৃদ্ধি পাবে।’

এছাড়াও ভারতীয় সাবেক মিডিয়াম পেসার মনোজ প্রভাকরও মুস্তাফিজের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন। তিনি জানান, সুইংটাকে এই বাংলাদেশি শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে গেছেন। 

মুস্তাফিজুরের অসাধারণ ব্যবহার আর ক্লিন অ্যাকশনে মুগ্ধ প্রভাকর। তিনি বলেন, ‘ইয়র্কার, কাটার সব কিছুই এর মধ্যে আয়ত্ত করে ফেলেছে ছেলেটা। মাথাটা ঠিক রাখতে পারলে এই ছেলেকে আটকানো মুশকিল হবে।’

এর আগেও জ্যাক ক্যালিস, মুত্তিয়া মুরালিধরনের মতো ক্রিকেট কিংবদন্তিরাও মুস্তাফিজকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন। বর্তমানে তিনি আইপিএলে অংশ নিতে ভারতে রয়েছেন। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলছেন তিনি। অন্যদিকে তাকে নিয়ে বিগ ব্যাশ লিগেও এরই মধ্যে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আমা

add-sm
Sonali Tissue
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩