বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪

ভার্চুয়াল রিয়েলিটি প্রযুক্তি ভিন্ন মাত্রা দেবে পর্

আপডেট: ১৫ জুন ২০১৬, বুধবার ১২:০৯ পিএম

ভার্চুয়াল রিয়েলিটি প্রযুক্তি ভিন্ন মাত্রা দেবে পর্

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক
এ বছরটি ভার্চুয়াল রিয়েলিটির যুগ হবে বলে মতামত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। ফেসবুকসহ বেশ কয়েকটি টেক জায়ান্ট ভিআর হেডসেট আনছে। এসব উন্নতমানের হেডসেটে পর্দার চিত্রায়ণ একেবারে বাইরে চলে আসবে। আপনি থাকবেন ঘটনার মাঝখানে। আর ভার্চুয়াল রিয়েলিটির মাধ্যমে পর্ন চলচ্চিত্রকে ভিন্ন মাত্রায় নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি উঠে এসেছে লাস ভেগাসে অনুষ্ঠিত ২০১৬ অ্যাডাল্ট এন্টারটেইনমেন্ট এক্সপো'তে।
কানাডার হলোফিল্ম প্রোডাকশনস-এর প্রেসিডেন্ট লি তার হাতে ৯৯ ডলার মূল্যের একটি ভিআর হেডসেট দেখিয়ে বলেন, এই যন্ত্রটি পর্ন ইন্ডাস্ট্রিকে ভিন্নমাত্রা দেবে। স্টার ওয়ারস ছবির পর্ন সংস্করণটি দেখানো হয় তার হাতে থাকা স্যামসাং গিয়ার ভিআর গগলস-এর মাধ্যমে। খুব শিগগিরই এমনভাবে পর্ন দেখা যাবে যেখানে দর্শকরা ওই প্রেক্ষাপটেই উপস্থিত আছেন বলে মনে হবে।
ইতিমধ্যে কানাডার প্রতিষ্ঠানটি থেকে বিশেষায়িত 'হলো গার্লস ভার্চুয়াল রিয়েলিটি হার্ডওয়্যার' প্রস্তুত করা হয়েছে। পর্ন ছবি দেখার সময় দর্শক ১৮০ ডিগ্রি কোণে মাথা ঘুরিয়ে সবকিছু দেখতে পাবেন। পর্দায় দেখার উত্তেজনা এবার বিস্ময়কর পর্যায়ে নিয়ে যাবে এই প্রযুক্তি।
প্রায় ৪০ বছর হতে চলেছে পর্ন ইন্ডাস্ট্রি বিশ্বে প্রতাপ করে যাচ্ছে। তখন থেকে একই ঘরানার ছবি চলে আসছে। এতে ভিন্ন আমেজ দিতে ভিআর হেডসেটের তুলনাই চলে না। কিছু পরিসংখ্যান জানায়, বিশ্বে ২৫ মিলিয়ন পর্ন সাইট রয়েছে। আর এ সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।
এভিএন কনভেনশনে বলা হয়, পর্নের ভবিষ্যত বাঁচাতে নতুন প্রযুক্তির প্রয়োগ ঘটাতে হবে। চার দিনের এভিএন এক্সপো অনুষ্ঠিত হয় লাস ভেগাসের হার্ড রক হোটেলে। সেখানে পর্ন মুভিকে ভার্চুয়াল রিয়েলিটির মাধ্যমে অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য ও আকর্ষণীয় করে তোলা যায় বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
লি তার নতুন প্রযুক্তি পর্ন সিনেমা সম্পর্কে অভিজ্ঞতা তুলে ধরতে গিয়ে বলেন, ভিআর প্রযুক্তির মাধ্যমে সত্যিকার অভিজ্ঞতা লাভ করবে দর্শক। এমনকি এটা বাস্তব ঘটনার চেয়েও বেশি উপভোগ্য হবে। মানুষের বিনোদনের জন্যে এ যাবতকালের সেরা ব্যবস্থাটাই করতে চলেছেন তারা। সূত্র: ডিএনএ ইন্ডিয়া
সোনালীনিউজ/এমটিআই