সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

‘মানুষ বলে স্বৈরাচার ছিলাম, কিন্তু কাউকে মারি নাই’

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০৫ পিএম

‘মানুষ বলে স্বৈরাচার ছিলাম, কিন্তু কাউকে মারি নাই’

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ সদ্য সমাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে প্রাণহানি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, মানুষ বলে স্বৈরাচার ছিলাম, কিন্তু কাউকে মারি নাই।

শনিবার (৪ জুন) চট্টগ্রাম নগরীর ষোলশহরে এক অনুষ্ঠানে এরশাদ বলেন, “ইলেকশনতো হয়ে গেল না? কিন্তু এটাকে ইলেকশন বলবেন?মানুষ বলে আমরা ছিলাম স্বৈরাচার, কিন্তু দেশের মানুষ মারি নাই। ক্ষমতার জন্য মানুষ গুম করি নাই। এখন মানুষের মধ্যে নিরাপত্তার অভাব। কে কখন উধাও হয়, কখন কাকে তুলে নিয়ে যাবে- আমরা কেউ জানি না।”

গুম-খুনের কারণে দেশের মানুষ ‘নিরাপত্তার অভাবে’ ভুগছে বলে মন্তব্য করেন সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ।

গত শতকের আশির দশকে সামরিক বাহিনী থেকে রাষ্ট্রক্ষমতায় আসা এরশাদ তার রাষ্ট্রপরিচালনার ধরনের কারণে দেশের মানুষের কাছে ‘স্বৈরাচার’ নামে পরিচিত পান।

প্রায় নয় বছর রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকার সময়ে তার বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠা বিভিন্ন আন্দোলন দমনে রাজনৈতিক নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন নাগরিকদের নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে সাবেক এই সেনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

শনিবার (৪ জুন) সর্বশেষ ষষ্ঠ ধাপের ভোটগ্রহণের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে ইউপি নির্বাচন। গত ফেব্রুয়ারিতে এই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে শতাধিক লোকের প্রাণহানি ঘটে।

এর মধ্যে পাঁচ ধাপের ভোটের দিন মারা যান অন্তত ৩৫ জন; বাকিরা ভোটের আগে-পরের সহিংসতায়।

ক্ষমতায় থাকাকালে দেশের উন্নয়নে কাজ করেছেন দাবি করে এরশাদ বলেন, “যতদিন ক্ষমতায় ছিলাম দেশের জন্যই কাজ করেছি। আমার মতো উন্নতি কেউ করতে পারেনি।ক্ষমতায় আর যদি পাঁচটা বছর থাকতে পারতাম, তবে দেশের চেহারা পাল্টে দিতে পারতাম। তবে ইনশাআল্লাহ আবারও ক্ষমতায় আসলে আবারও মানুষের জন্য কাজ করব। দেশকে সত্যিকার উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাব।”

দেশের মানুষ ‘শান্তিতে’ নেই বলে দাবি নব্বইর গণঅভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত এরশাদের।

তিনি বলেন, “আল্লাহর কাছে দোয়া করি, আল্লাহ দেশে শান্তি ফিরিয়ে দিক। আগের বাংলাদেশ ফিরিয়ে দিক। আমরা শান্তিতে ঘুমাতে পারি সেদেশ ফিরিয়ে দিক, যাতে দেশের মানুষ শান্তিতে থাকতে পারে।”

ষোলশহরে ফ্যাশন হাউজ ‘এসএ ওয়ার্ল্ড’ এর উদ্বোধন উপলক্ষে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উদ্বোধনী বক্তব্যের পর এরশাদ ফিতা ও কেক কেটে ‘এসএ ওয়ার্ল্ডে’র উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে চিত্রনায়ক ফেরদৌস ও চিত্র নায়িকা পূর্ণিমা উপস্থিত ছিলেন।

ষোলশহরে এসএ টাওয়ারের চতুর্থ থেকে ষষ্ঠ তলায় গড়ে ওঠা এই শো-রুমে থাকছে নারী, পুরুষ ও শিশুদের পোষাক।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির নেতা সাংসদ জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সোলায়মান আলম শেঠ ও সুনীল শুভ রায়, এসএ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সালা্হউদ্দিন আহমদ, এসএ টিভির চেয়ারপার্সন ফরিদা ইয়াসমিন পারভিনসহ অন্যরা।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমএইচএম

 

add-sm
Sonali Tissue
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩