রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

মারিয়া হত্যায় দুইজনের ফাঁসি

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৪ পিএম

মারিয়া হত্যায় দুইজনের ফাঁসি

গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুর জেলার কোনাবাড়িতে কিশোরী মারিয়া হত্যার দায়ে বাড়ির কেয়ারটেকার সুমন শেখ ও দারোয়ান আব্দুল আলিমের বিরুদ্ধে ফাঁসির দণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। একই ঘটনায় ওই দারোয়ানের স্ত্রী শেফালী বেগমকেও ৫ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এ কে এম এনামুল হক এ আদেশ দেন। এ সময় আসামি আব্দুল আলিম ও তার স্ত্রী আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

নিহত মারিয়া গাজীপুরের কোনাবাড়ি এলাকার এরশাদ নগর হাউজিং এস্টেটের বাসিন্দা আক্তারুজ্জামানের মেয়ে।

মামলার সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৪ জুলাই সকালে মারিয়া আক্তার স্কুলের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। বিকেলে তাকে না পেয়ে নানা জায়গায় খোঁজ-খবর নেয়া হয়। পরে বাড়ির কেয়ারটেকার সুমন শেখ ও দারোয়ানকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা জানে না বলে জানায়। পরে মারিয়ার আত্মীয়-স্বজন বাড়ির গ্যারেজের ভেতর খোঁজ করতে চাইলে দারোয়ান আব্দুল আলিম ও তার স্ত্রী মিথ্যা তথ্য দিয়ে তাদের বিভ্রান্ত করে। রাতে স্থানীয় লোকজন অভিযুক্তদের হেফাজত থেকে গ্যারেজের চাবি নিয়ে তালা খুলে সুমনের চৌকির নিচে মারিয়ার মরদেহ দেখতে পান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্তদের আটক করে।

নিহতের বাবা আক্তারুজ্জামান ১৫ জুলাই জয়দেবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আলম চাঁদ তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানির পর আদালত সুমন শেখ ও আব্দুল আলিমকে দোষী সাব্যস্ত করে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রেখে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আদেশ দেন। একই সাথে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বাদীপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সরকারি পিপি অ্যাডভোকেট হারিছ উদ্দিন আহমদ ও আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট এসএম রফিকুল ইসলাম মুকুল। রায়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও নিহতের স্বজনরা সন্তোষ প্রকাশ করেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এমএএইচ

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩