রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩

মীর কাসেমের মামলা ছাড়লেন বিচারপতি নজরুল ইসলাম

আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৪ পিএম

মীর কাসেমের মামলা ছাড়লেন বিচারপতি নজরুল ইসলাম

সোনালীনিউজ ডেস্ক

বৈরী পরিবেশের কথা উল্লেখ করে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়েত নেতা মীর কাসেম আলীর মামলার পরিচালনা থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিলেন সদ্য অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

আজ সোমবার সকালে তিনি আপিল বিভাগে গিয়ে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। ‘প্রত্যন্ত বৈরি পরিবেশের’ কথা বলে মামলার কার্যক্রম থেকে নিজেকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন বিচারপতি নজরুল। তিনি তার বক্তব্যের একটি কপি সাংবাদিকদের কাছে পড়েও শোনান।

নজরুল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘আইন ও সংবিধানসম্মতভাবে আমি মীর কাসেমের মামলায় অংশগ্রহণ করেছিলাম। কিন্তু প্রত্যন্ত বৈরি পরিবেশের কারণে আমি এই মামলার কার্যক্রম থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিতে বাধ্য হচ্ছি।’ 

তিনি বলেন, ‘গত ১২ ডিসেম্বর আমি বিচারপতি থেকে অবসর গ্রহণ করি। ৩ জানুয়ারি থেকে আমি আপিল বিভাগে নিয়মিত বিভিন্ন মামলার শুনানিতে অংশ নিয়েছি। ইতোমধ্যে অন্তত দুটি মামলায় একটি মক্কেলের পক্ষে ও তিনটি মামলায় অপর মক্কেলের পক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেলের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেছি।’ 

‘উক্ত মামলাগুলো শুনানির সময় অ্যাটর্নি জেনারেল আমার প্র্যাকটিস বা নৈতিকতা নিয়ে আপত্তি তোলেননি। কিন্তু মীর কাসেম আলীর মামলা পরিচালনা করতে গেলে অ্যাটর্নি জেনারেল আমার প্র্যাকটিসের নৈতিকতা ও বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন, যা অনাকাঙ্ক্ষিত’ বলেন বিচারপতি নজরুল।

কিছুদিন ধরে গুঞ্জন চলছিল বিচারপতি নজরুল যুদ্ধাপরাধ মামলার আসামি মীর কাসেম আলীর পক্ষে ওকালতি করবেন না। 

গতকাল সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে ওই মামলার প্রধান আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের বলেছিলেন, অবসর নেয়ার পর আইনজীবী হিসেবে আদালতে প্র্যাকটিস করার সাংবিধানিক অধিকার বিচাপতিদের। সোমবার মীর কাসেমের মামলাটি আপিল বিভাগে শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে নজরুল ইসলাম তার কথা তুলে ধরবেন।’

সোনালীনিউজ/আমা

add-sm
Sonali Tissue
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩