মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৩

মেঘের গর্জনের মাধ্যমেই আল্লাহ মানুষকে সতর্ক করেন

সোনালীনিউজ ডেস্ক
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

মেঘের গর্জনের মাধ্যমেই আল্লাহ মানুষকে সতর্ক করেন

মেঘের গর্জনে মানুষের মাঝে ভীতির সঞ্চার হয়। এ মেঘের গর্জনের মাধ্যমেই আল্লাহ তাআলা মানুষকে সতর্ক করে থাকেন। আল্লাহ তাআলা সুরা রাদের ১৩ নং আয়াতে বলেন, তাঁর প্রশংসা পাঠ করে বজ্র এবং সব ফেরেশতা, সভয়ে। তিনি বজ্রপাত করেন, অতপর যাকে ইচ্ছা, তাকে তা দ্বারা আঘাত করেন; তথাপি তারা আল্লাহ সম্পর্কে বাক-বিতণ্ডা করে, অথচ তিনি মহাশক্তিশালী। তাই বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মেঘের গর্জনের করণীয় নির্ধারণে বলেন-

হজরত আবদুল্লাহ ইবনে জুবাইর রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, নিশ্চয় রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন মেঘের গর্জন শুনতেন তখন কথাবার্তা ছেড়ে দিতেন এবং এ আয়াত পাঠ করতেন-

উচ্চারণ : সুবহানাল্লাজি ইউসাব্বিহুর রা`দু বিহামদিহি ওয়াল মালা-ইকাতু মিন খি-ফাতিহি।

অর্থ : আমি সেই সত্তার পবিত্রতা ঘোষণা করছি, যার পবিত্র ঘোষণা করছে মেঘের গর্জন তাঁর প্রশংসার সাথে। আর ফেরেশতাকুল প্রশংসা করে ভয়ের সাথে। (মুয়াত্তা মালেক, মিশকাত)

পরিশেষে...
মুসলিম উম্মাহর উচিত, মেঘের গর্জন তথা বজ্রপাতের সময় আল্লাহর প্রশংসা করা, সকল প্রকার অন্যায় ও অবাধ্য আচরণ থেকে আল্লাহর নিকট ক্ষমা চাওয়া। আল্লাহ তাআলা সবাইকে এ হাদিসের আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

Sonali Bazar
add-sm
Sonali Tissue
মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৩